পর্ণার সাথে নোংরামি করলো ইশা, সবটা বুঝতে পেরে প্রতিশোধ নিতে উল্টো চাল চাললো সৃজন!

জি বাংলার (Zee Bangla) সবচেয়ে জনপ্রিয় ধারাবাহিক নিম ফুলের মধুতে (Neem Fuler Modhu) ঘটে গেল এক ধুমধুমার কান্ড। আবারো এক বড় বিপদের সম্মুখীন হল ধারাবাহিকের নায়িকা পর্ণা। আর তাকে এই বিপদে ফেলল ইশা, মৌমিতা আর অয়ন।

দর্শকরা ইতিমধ্যেই দেখেছেন, একটি বেশ স্বনামধন্য ম্যাগাজিনের কভারে নিজেকে দেখার সুযোগ পেয়ে যায় পর্ণা। আর সেই সুযোগটা তাকে করে দেয় তার কলেজের খুব কাছের এক বন্ধু অনুভব। প্রথমে সৃজন এতে সায় না দিলেও ঠাম্মির মুখের ওপর কিছুই বলতে পারেনা সে।

আরো পড়ুন:আবার শোকের ছায়া টলি জগতে! নিজের জীবনের সবচেয়ে প্রিয় মানুষটাকে হারালেন অভিনেত্রী সায়নী

ধারাবাহিকের আজকের পর্বে দেখা যায়, সেই ছবিগুলোকে নিয়ে পর্ণার চরম সর্বনাশ করতে উঠে পড়ে লাগে ইশা। আর তাকে সম্পূর্ণ সহায়তা করে মৌমিতা এবং তার স্বামী অয়ন। অনুভব নিজের ল্যাপটপটা বাইরে রেখেই ঠাম্মির ঘরে চলে যায় আর সেই সুযোগটাকেই কাজে লাগায় তারা।

ইশাকে সমস্ত ফটো তখনই পাঠিয়ে দেয় মৌমিতা অয়ন। ইশা সেই ফটোগুলোকে লিফলেট বানিয়ে তাতে পর্ণার নাম্বার যোগ করে সেখানে লিখে দেয় বন্ধু চাই। যেটার অর্থ খুবই নোংরা এবং নিচ মানসিকতা সম্পন্ন। শুধু এখানেই থেমে থাকেনি সে। গুলো ট্রেনে বাসে গলির আনাচে কানাচে সব জায়গায় লাগিয়ে দেয় ইশা।

যথারীতি একাধিক রং নাম্বারে ফোন আসতে থাকে পর্ণার ফোনে। শেষটায় বিরক্ত হয়ে থানায় যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় সৃজন। আর রাস্তায় গিয়ে দেখতে পায় লিফলেট গুলো। দেখামাত্র ইশার ওপর সন্দেহ হয় সৃজনের। অয়ন পর্ণার বিরুদ্ধে উস্কোতে থাকে সৃজনকে। বোঝাই যাচ্ছে এইবার এক চরম শাস্তি অপেক্ষা করছে ইশার জন্য।

Back to top button