নিজের হাতে জগদ্ধাত্রীকে খাইয়ে দিল রাজনাথ, জ্যাসের সর্বনাশ করতে উৎসবকে ব্যবহার করল দিব্যা সেন!

প্রতিটি মেয়ে স্বপ্ন দেখে সে তার শ্বশুরবাড়িতে গিয়ে নিজের শ্বশুরমশাই এর মধ্যে বাবাকে খুঁজে পাবে। যারা সেটা সত্যিই করতে পারে তারা ভাগ্যবান। আর এই মুহূর্তে নিজের শ্বশুরমশাইয়ের মধ্যে বাবাকে খুঁজে পাচ্ছে জগদ্ধাত্রী। এখন জি বাংলায় (Zee Bangla) জমজমাট জগদ্ধাত্রী (Jagaddhatri)। এই ধারাবাহিকে নায়িকার বুদ্ধি চালচলন এবং দমদার অ্যাকশন মুগ্ধ করেছে ৮ থেকে ৮০ সকল দর্শকদের। সম্প্রতি অনেক বড় বিপদের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে ধারাবাহিকের নায়ক-নায়িকা।

নিজের ছেলেকে বাঁচাতে এবং স্বয়ম্ভু ও জগদ্ধাত্রীকে বিপদে ফেলতে অনেক বড় একটা গেম খেলছে রাজনাথ মুখার্জীর দ্বিতীয় স্ত্রী বৈদেহি মুখার্জী। প্রথমে সে উপল মৈত্রের সাক্ষ্য বদলানোর চেষ্টা করে। এরপর সে নিজেই কিছু দিনের জন্য উধাও হয়ে যায়। শুধু তাই নয় স্বয়ম্ভু এবং জগদ্ধাত্রীর একাউন্টে অনেকগুলো টাকা পাঠায় যাতে সবাই তাদের দুজনকে দোষী ভাবে।

ধারাবাহিকের আজকের পর্ব দেখা যায়, রাজনাথ জগধাত্রীর কাছে এসে নিজের স্ত্রীয়ের খোঁজ জানতে চাইলে খুব আবেগপ্রবণ হয়ে যায় জগদ্ধাত্রী। এরপর সে তার শ্বশুর মশাইকে বলে, “আজ এতগুলো টাকা কিভাবে ট্রান্সফার হলো সেই নিয়ে অফিসে মিটিং চলছে আর আপনি এখানে। তার কারণ হলো আপনি বিশ্বাস করেন না যে ওগুলো আমরা করেছি। আপনি একবার এই রাজনাথ নামটার খোলস ছেড়ে বেরিয়ে এসে বাবা হয়ে উঠুন দেখবেন আপনার চোখের সামনে সবটা পরিষ্কার হয়ে গেছে। আমি আপনার সংসার জুড়ে দেবো। সব ঠিক হয়ে যাবে।” কথাগুলো শুনে চোখে জল চলে আসে তার।

এরপর জগদ্ধাত্রী বুঝতে পারে রাজনাথ সকাল থেকে কিছুই খায়নি। তাই সে নিজের টিফিন বক্স থেকে ভাত তরকারি বের করে দিয়ে রাজনাথকে বলে, সে তার রান্না করা খাবার খায় না বলে তারও কিছু খাওয়া হয় না। এরপর রাজনাথ জগধাত্রী বেড়ে দেওয়া খাবার খেয়ে নেয় এবং নিজের হাতে জগদ্ধাত্রীকে খাইয়ে দেয়। এই দৃশ্য দেখে চোখ জুড়িয়ে যায় ডিপার্টমেন্টের হেড সাধুদার।

আরো পড়ুন: শন ব্যানার্জির নায়িকা হয়ে ফিরছে জি বাংলার কন্যা ‘মেঘ’ তিতিক্ষা দাস! জলসায় আসছে হাই বাজেটের নতুন মেগা!

অন্যদিকে দেবু আর দিব্যা সেন দুজন মিলে উৎসব আর মেহেন্দির মাথায় এটাই ঢোকাতে থাকে যে জগদ্ধাত্রী আর স্বয়ম্ভু দুজনে মিলে কৌশিকী মুখার্জীর মাথায় টুপি পরিয়ে সমস্ত টাকা নিজেদের ব্যাংকে ট্রান্সফার করিয়েছে। তারাই উৎসবের মাকে কোথাও একটা সরিয়ে দিয়েছে। এসব শুনে জ্বলে ওঠে উৎসব। তাকে ব্যবহার করেই নিজেদের কার্যসিদ্ধি করতে চায় দেবু।

Back to top button