বিয়ে হচ্ছে মেঘের, জানতে পেরে নিজেও বিয়েতে রাজি হয়ে গেলো নীল! শেষবার মেঘকে বিদায় জানালো সে

মেঘকে ছেড়ে অন্য কাউকে বিয়ে করার কথা এতদিন অবধি ভাবতেও পারছিল না জি বাংলার (Zee Bangla) চ্যানেলের ইচ্ছে পুতুল (Ichhe Putul) ধারাবাহিকের নায়ক নীল। নায়িকা মেঘও বিয়েতে রাজি হয়েছে কেবলমাত্র নীলকে ভুলে থাকার জন্য। কিন্তু দুজনের দেখা সবকিছু ওলট-পালট করে দিল। যত দিন যাচ্ছে একটু একটু করে কাছে আসছে মেঘ নীল। দূরে গিয়েও কাছে আসছে তারা।

বর্তমান গল্প অনুযায়ী, এইভাবে একে অপরের থেকে দুটো মানুষ আলাদা হয়ে যাবে এটা কিছুতেই মেনে নিতে পারছিল না নীলের ঠাম্মি। তাই সে পুনরায় তার নীল দাদা আর মেঘ দিদির বিয়ের তোড়জোড় শুরু করে। মেঘ আর নীল যে এখনো একে অপরকে ভালোবাসে এটা বুঝতে পেরেছিল ঠাম্মি। তাই এইবার সে নিজেই উঠে পড়ে লাগে তার নাতি এবং নাত বউয়ের জীবনটা আবার একসাথে জুড়ে দেওয়ার জন্য।

ধারাবাহিকের আজকের পর্বে দেখা যায়, কিছুটা হলেও মিলে গেল মধুমিতার কথা। মেঘ উনিভার্সিটিতে গেছে এটা জানতো না নীল। অনেকদিন পর কলকাতা আসায় নিজের ইউনিভার্সিটিতে গিয়ে তার কলিগদের সাথে দেখা করে সে। আর সেখানেই নীল জানতে পারে মেঘ উনিভার্সিটিতে এসেছে। এরপর নীল লাইব্রেরীতে চলে যায় মেঘকে খুঁজতে। মেঘ যখন ফোন খোজার বাহানায় দ্যুতি ম্যামের ঘরে এসে উপস্থিত হয়। এরপর যখন সে জানতে পারে তাকে খুঁজতে নীল লাইব্রেরীতে গেছে তখন সে আবার লাইব্রেরী চলে যায়। কিন্তু মিল ততক্ষণে আবারো সেখান থেকে বেরিয়ে গিয়েছে। এইভাবে তারা গোটা ইউনিভার্সিটি একে অপরকে খুঁজে বেড়ায়।

এরপর মেঘ বাড়ি ফিরে আসে। আর বসে বসে ভাবতে থাকে সে এমনটা কেন করছিল? তার মানে সে কি নীলের সাথে দেখা করতে বা কথা বলতে চাইছিল? কিন্তু সে এটা কেন চাইছিল? নীল যে তার জীবনে সব থেকে বড় ক্ষতি করেছে এটা কিছুতেই নিজেকে বোঝাতে পারেনা মেঘ। এরপর সে ভাবতে থাকে এইভাবে মন থেকে না চেয়েও বিয়ে করাটা তার ঠিক হবে না। সে তার বাবাকে বলে বিয়েটা ক্যানসেল করে দেবে। ঠিক তখনই তার ঘরে আসে মধুমিতা এবং এসে বলে তার সঙ্গে একজন দেখা করতে এসেছে। তার সাথে দেখা করতে এসেছে নীল।

আরও পড়ুনঃ ময়লা ঘরে পা রাখতেই রেগে গেল মিসেস বরাগ, সংকটে পড়লো হোম স্টে! নিজের বুদ্ধি দিয়ে সেই রাগকে গলিয়ে জল করে দিল পর্ণা

এরপর একে অপরের সামনে অনেকক্ষণ চুপ করে বসে থাকে, মেঘ আর নীল। এরপর কথাবার্তায় তারা বুঝতে পারে আজ গোটা ইউনিভার্সিটি তারা একে অপরকে খুঁজে গিয়েছে। দুজনের মধ্যে কথোপকথন হয় আর তখন মেঘ জানায় সে বিয়ে করতে চলেছে। কথাটা জানতে পেরে ভীষণ কষ্ট পায় নীল। সে মেঘকে বিদায় জানায়। দুজনেই কান্নায় ভেঙে পরে।

Back to top button