“তোমায় আমার সাথে থাকতে হবে না…” নীলের কথায় অবাক মেঘ, মনে মনে যে স্বপ্ন ছিল তার সব ভেঙে গেল!

শুধুমাত্র মনে জমে থাকা কথাগুলো বলার অভাবে কত কিছু অজানা থেকে যায়, আর যেটা অন্যরকম হতে পারতো সেটা আর হয়ে ওঠেনা। জি বাংলার (Zee Bangla) ইচ্ছে পুতুল (Ichhe Putul) ধারাবাহিকের নায়ক নায়িকা মেঘ এবং নীলের মধ্যেও ঠিক এমনটাই ঘটলো। কেউ কারো মনের কথা একে অপরকে বোঝাতে পারল না।

বর্তমান গল্প অনুযায়ী, কোর্টে গিয়ে নীল এবং মেঘকে বিচারক যা যা জিজ্ঞাসা করেন এবং তার উত্তরে তারা দুজন যেগুলো বলে সব মিলিয়ে বিচারক এই সিদ্ধান্তে আসেন যে নায়ক নায়িকাকে আরো ছয় মাস একসঙ্গে থাকতে হবে। আর তারপরেই ডিভোর্স গ্রান্টেড হবে।

আরো পড়ুন:সব ছেড়ে চলে গেলো নীল, চেয়েও তাকে ছুঁতে পারলো না মেঘ! এখানেই আলাদা হয়ে যাবে মেঘ নীলের পথ!

ধারাবাহিকের এই দিনের পর্বে দেখা যায়, বিচারকের এমন বিচারে ভীষণ খুশি গিনি। মুখে না বললেও মন থেকে ভীষণ খুশি মেঘ। কিন্তু সেই আনন্দ এক নিমেষে উধাও করে দিল নীল। মেঘের মা-বাবার থেকে অনুমতি নিয়ে তার সাথে আলাদা করে কিছু কথা বলতে চায় নীল।

নীল মেঘকে বলে, “আমি জানি আমার সঙ্গে থাকাটা তোমার পক্ষে খুব কষ্টকর। আর আমি এই কষ্ট বাড়াবো না। তোমায় আমার সঙ্গে একদিনও থাকতে হবে না, তুমি যেমন আছো ভালো আছো, সে রকমই থাকো। শুধু এই বিষয়টা কোর্ট কে না জানালে চলবে।” মনে মনে নীল বলে, “একবার বল মেঘ যে তুমি আমার সঙ্গে থাকতে চাও।” কিন্তু মেঘ সেটা বলে না কারণ যে মানুষটা তার সাথে থাকতে চায় না তাকে মেয়ে কি নিজের আত্মসম্মান খুইয়ে কেন সেই কথা বলবে?

নীলের নেওয়া এই সিদ্ধান্তের কথা জানতে পেরে ভীষণ রেগে যায় গিনি। মেঘও খুব কষ্ট পায় কিন্তু বুঝতে পারেনা, কেন কষ্ট পাচ্ছে। অন্যদিকে ঠাম্মিও নীলের এমন অদ্ভুত সিদ্ধান্তে বেশ কষ্ট পায়। সব শেষ হয়ে যায় মেঘ নীলের মাঝে। মেঘ চেয়েও কিছু আটকাতে পারে না।

Back to top button