“ম’ধু’চ’ন্দ্রি’মায় গিয়ে বলেছিল অন্য কারোর সঙ্গে সম্পর্ক রয়েছে…” উত্তম কুমারের নাতনিকে বিয়ে করে ঠ’কে’ছে’ন ভাস্বর!

টলিউডের (Tollywood) পরিচিত মুখ অভিনেতা ভাস্কর চট্টোপাধ্যায় (Bhaswar Chatterjee)।টেলিভিশনের বিভিন্ন ধারাবাহিকে নিপাট ভালো মানুষের চরিত্রে দেখা যায় তাকে। পর্দার মতোই অভিনেতা বাস্তব জীবনেও যথেষ্ট স্পষ্টবাদী। তিনি সাম্প্রতিক এক সাক্ষাৎকারে জানান, প্রথম বিয়ে থেকে অসম্মান পেয়েছেন তিনি। আর দ্বিতীয় বিয়ে থেকে কার্যত ঠকে গিয়েছেন অভিনেতা ভাস্বর চট্টোপাধ্যায়।

বছর পঞ্চাশের দোড়গোড়ায় পরপর দুবার বিয়ে করেছেন অভিনেতা ভাস্বর। ২০০৬ সালে প্রথম বিবাহিত সম্পর্কে পা রাখেন অভিনেতা। ‌সম্বন্ধ করে বিয়ে হয়েছিল সেবার। অভিনেতার প্রথম স্ত্রী প্লাবনী মুখোপাধ্যায় ছিলেন টলিউডের বাসিন্দা। বিয়ে তিন মাসের মাথায় তিনি জানতে পারেন তাঁর স্ত্রী মা হতে চলেছে। এই খবর শুনে প্রবল আনন্দ হলেও পরে বাস্তবটা চোখের সামনে স্পষ্ট হয়ে যায়।

অভিনেতা জানান তাঁর স্ত্রী অনেক সকালবেলা ঘুম থেকে উঠে বেরিয়ে যেতেন আর ফিরতেন অনেক রাত করে। ‌পরে তিনি জানতে পারেন তার স্ত্রী গর্ভপাত করিয়েছেন। এই বিয়েতে মত ছিল না তার। কার্যত বাড়ি থেকে জোর করেই বিয়ে দেওয়া হয়েছিল তাঁকে। অভিনেতার প্রথম স্ত্রী হঠাৎ করেই তার ওপর বধূ নির্যাতনের মামলা চাপিয়ে দেন। ‌আর সেই মামলার ফলে দুই রাত জেলে কাটাতে হয়েছিল ভাস্বর চট্টোপাধ্যায়কে।

এরপর প্রায় সাত বছর পেরিয়ে যেতে পুনরায় বিয়ের পিঁড়িতে বসেন অভিনেতা। উত্তম কুমারের নাতনি নবমিতাকে বিয়ে করেছিলেন তিনি। তবে দ্বিতীয় বিয়েতেও সুখী দাম্পত্য মেলেনি! দীর্ঘ সময়ের চেনাজানার পরে বিয়ে করেছিলেন নবমিতাকে। যদিও পরে তিনি জানতে পারেন অভিনেতার দ্বিতীয় স্ত্রীও তাঁকে ঠকিয়েছেন!

আরো পড়ুন: শর্ট ফিল্মের নাম করে সৃজনকে ফাঁ’দে ফেললো সুইটি! শেষ মুহূর্তে এসে সবার সব প্ল্যানে জল ঢে’লে দিল পর্ণা!

ভাস্বর জানান, বিয়ের পর স্ত্রীর সঙ্গে মধুচন্দ্রিমায় গিয়ে আসল সত্যি জানতে পারেন তিনি। সেখানে গিয়ে তিনি জানতে পারেন, নবমিতার অন্য কারুর সঙ্গে সম্পর্ক রয়েছে। এক সাক্ষাৎকারে অভিনেতা বলেন, “আমি ওকে বললাম এ কথা আগে জানালে বিয়ে ভেঙে দিতাম। হাতে সময় ছিল।” নায়কের উত্তরের পরিপ্রেক্ষিতে নবমিতা বলেছিলেন, “বলতে চেয়েছি কিন্তু বাড়ির চাপে বলতে পারিনি।”

Back to top button