মোড় ঘোরানোর তিন দিন, শ্লীলতাহানির অপরাধে গ্রেফতার রোহিত, সব অভিযোগ মিথ্যে প্রমাণ করবে ফুলকি!

এই মুহূর্তে বাংলা ধারাবাহিকের প্রতিযোগিতায় যাদের স্থান একেবারে শীর্ষে তাদের মধ্যে অন্যতম হলো জি বাংলার (Zee Bangla) ‘ফুলকি’ (Phulki)। এই ধারাবাহিকের জনপ্রিয়তা সেই শুরুর দিন থেকে একেবারে অনড়। প্রথম পাঁচ থেকে এই ধারাবাহিককে সরানো তার প্রতিপক্ষের কাছে দুষ্কর হয়ে উঠেছে। মেগায় নতুন চমক আনতে ধারাবাহিকে আসছে মোড় ঘোরানো তিন দিন।

বর্তমানে এই ধারাবাহিকের গল্প অনুযায়ী, ফুলকি রোহিতকে ডিভোর্স দিতে চাইছে কারণ রোহিতের এই দোটানায় পড়ে থাকাটা সহ্য করতে পারছে না ফুলকি। সে চায় শালিনীর সাথে সুখে সংসার করুক রোহিত। কিন্তু রোহিত ফুলকিকে ছাড়তে চায় না কারণ এই ডিভোর্সটা হয়ে গেলে ফুলকিকে আবার নিজের বাড়িতে ফিরে যেতে হবে আর সেখানে গেলে ফুলকির ক্যারিয়ারটা নষ্ট হয়ে যাবে।

কিন্তু রুদ্র রোহিতকে ফাঁদে ফেলে। ধারাবাহিকের এই দিনের পর্বে দেখা যায় ডাক্তার রোহিতকে ফোন করে শালিনীর অসুস্থতা নিয়ে মিথ্যা কথা বলে। রোহিত সকল জানতে পারে শালিনী আবার নিজেকে শেষ করে দেওয়ার কথা ভাবছে তখন বেশ খানিকটা দুশ্চিন্তায় পড়ে যায় সে। কি করবে কিছুই ভেবে উঠতে পারে না। সবাই মিলে রোহিতের সাথে একটা মাইন্ড গেম খেলতে থাকে। ডাক্তারের কথা থেকে শুরু করে পারমিতার শাশুড়ির হঠাত বদলে যাওয়া এবং শালিনীর করুন মুখ সব মিলিয়ে রোহিত আর নিজেকে সামলে রাখতে পারে না।

প্রথম হিয়ারিং এই রহিত বলে দেয় সে ফুলকিকে ডিভোর্স দিয়ে দেবে তার কোন সমস্যা নেই। কথাটা শুনে খুব কষ্ট পাই ফুলকি। সে নিজেও বুঝতে পারে না এমনটা কেন হচ্ছে তার সাথে। কারণ সে নিজেই এই ডিভোর্সটা করতে চেয়েছিল আর আজ যখন তার স্যার রাজি হয়ে গেছে তখন তো তার এত কষ্ট পাওয়ার কথা নয়। তারপরেও ভীষণ ভেঙ্গে পড়ে ফুলকি। এর মাঝেই রোহিতের জীবনে ধেয়ে এলো এক নতুন ঝড়। সম্প্রতি এই ধারাবাহিকের একটি নতুন প্রোমো ভিডিও সম্প্রচারিত হয়েছে।

আরো পড়ুন: পালিয়ে বিয়ে সারলেন স্টার জলসার জনপ্রিয় অভিনেতা-অভিনেত্রী! অবাক গোটা ভাক্তমহল

এখানে দেখা যাচ্ছে রোহিতকে গ্রেফতার করে নিয়ে যাচ্ছে পুলিশ। চারিদিক ঘিরে ধরেছে মিডিয়ার লোকজন। তারা প্রচার করছে, শ্রী’ল’তা’হা’নি’র অভিযোগে গ্রেফতার হলেন এক্স বক্সার রোহিত। তখন একটা লোক হাতে কালি মেখে রোহিতের মুখে সেই কালি মাখাতে এলে ফুলকি এসে তাকে আটকায়। রোহিত বলে আবার তার অন্ধকার অতীত তার জীবনে ফিরে এসেছে। তখন ফুলকি বলে, “সেই সময় আপনার জীবনে ফুলকি দাস ছিল না। আমি সব সত্যি খুঁজে বের করে আপনাকে নির্দোষ প্রমাণ করব।” ফুলকি কি পারবে সারা জীবনের মতন রোহিতকে তার অন্ধকার অতীত থেকে মুক্তি দিতে?

Back to top button