“আমার মনে হচ্ছে আমরা লুকিয়ে লুকিয়ে প্রেম করছি”- কফি ডেটে মেঘকে চমকে দিল নীল! সম্পর্কে এলো নতুন মোড়

বেশ কিছুদিন ধরেই জি বাংলার (Zee Bangla) চ্যানেলের ইচ্ছে পুতুল (Ichhe Putul) ধারাবাহিকটি দর্শকদের আবেগপ্রবণ করে তুলছে। কারণ দুজনের মন অন্য কথা বললেও অভিমানের বসে আলাদা হয়ে যাচ্ছে নায়ক নায়িকা। তবে আদৌ ঠিক কি ঘটবে সেটা এখনও পরিষ্কার নয়। সত্যি কি এই বিচ্ছেদের কষ্ট সারা জীবন বয়ে বেড়াতে হবে তাদের? নাকি আবার শেষ থেকে শুরু করবে তারা? দর্শকরা চান আবার নতুন করে শুরু হোক মেঘ নীলের কাহিনী। যেখানে কোনো ভুল বোঝাবুঝি বা অবিশ্বাস নিজেদের জায়গা করতে পারবে না। এই মুহূর্তে ধারাবাহিকের টিআরপি খুব একটা আশানুরূপ না হলেও মেগার জনপ্রিয়তা তুঙ্গে।

আরো পড়ুন:টেলি অভিনেত্রীর প্রাক্তনের প্রেমে সৌমিতৃষা! খবর প্রকাশ্যে আসতেই মুখ খুললেন মিঠাই রানী!

 

বর্তমান গল্প অনুযায়ী, দীর্ঘ ছয় মাস পর ডিভোর্স করতে দিল্লি থেকে কলকাতায় নিজের বাড়িতে ফিরেছে নীল। এদিকে জিষ্ণুর সাথে একটা সুন্দর সম্পর্ক তৈরি হয়েছে গিনির। জিষ্ণুর বাজি ধরেছিল মেঘ নীলের বিচ্ছেদ হবে না। কিন্তু তার সেই কথাকে মিথ্যে প্রমাণিত করে বিচারকের সামনে মেঘ আর নীল দুজনেই আলাদা হওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় আর বিচারক তাদের ডিভোর্সকে আইনত ভাবে কার্যকর করে।

ধারাবাহিকের আজকের পর্বে দেখা যায়, যখন বিচারক মেঘ এবং নীলের বিচ্ছেদ ঘোষণা করে তখন একেবারে ফ্যাকাসে হয়ে যায় তাদের মুখ। তারা দুজনের কেউই যে এটা চায়নি, তাদের মনে যে এক সাথে থাকার সুপ্ত বাসনা ছিল সেটা তাদের অভিব্যাক্তিতে ফুটে ওঠে। তবে এখন অনেকটা দেরি হয়ে গিয়েছে। সব শেষ হয়ে গিয়েছে। কিন্তু কোথাও গিয়ে মনে হচ্ছে এটাই তাদের জীবনের নতুন শুরু ঘটাবে।

কোর্টের বাইরে মেঘকে দাড় করিয়ে নীল কিছু কথা বলে যেগুলো শুনে রীতি মত অবাক হওয়ার জোগাড়। মেঘের সাথে কফি খেতে যেতে চায় সে। নীল বলে, আর পাঁচটা এক্স হাজবেন্ড ওয়াইফ এর মতন না থেকে তারা কি বন্ধু হতে পারে? নীলের প্রস্তাবে একপায়ে রাজি মেঘ।

 

এর পর দেখা যায় রেস্টুরেন্টে অপেক্ষা করছে নীল। কিছুক্ষণ পর সেখানে আসে মেঘ। তার পর তারা কথা বার্তা শুরু করে। নীল বলে, “আমার কেমন যেনো মনে হচ্ছে আমরা লুকিয়ে লুকিয়ে প্রেম করছি।” এর পর স্বাভাবিক ভাবেই তারা কথা বার্তা বলতে থাকে। একটা সময় পর নীল বলে, তাকে যেনো মেঘ ক্ষমা করে দেয়। মেঘ বলে, তার মধ্যে আর ক্ষমা করার শক্তি নেই। কোন দিকে এগোচ্ছে তাদের নতুন করে গড়ে তোলা সম্পর্ক?

Back to top button