পিয়াকে হারানো আমার জীবনের সবচেয়ে বড় ক্ষতি! ৩৯ বছরে সঙ্গী হারানো নিদারুণ কষ্টের! অকপট অনুপম

বিয়ে করার পর সবাই শুভেচ্ছা কুড়োয়। কিন্তু সাম্প্রতিক সময় টলি পাড়ায় একটি জুটি বিয়ে করে শুভেচ্ছার পরিবর্তে কটাক্ষ কুড়োচ্ছে। আর সেই জুটি হলো মানসিক স্বাস্থ্যকর্মী পিয়া চক্রবর্তী (Piya Chakraborty ) ও বাংলার স্বনামধন্য অভিনেতা পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় (Parambrata Chatterjee) । বিয়ে করে রীতিমতো বিড়ম্বনায় পড়েছেন তারা। তাদের নিয়ে বয়ে যাচ্ছে কটাক্ষের বন্যা। আর সহানুভূতি কুড়োচ্ছেন অন্য এক মানুষ।

তিনিও সমানভাবে জনপ্রিয়। প্রতিভাবান। দুসপ্তাহ আগে পিয়া চক্রবর্তীকে বিয়ে করে মানসিক শান্তি পেয়েছেন অভিনেতা পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় (Parambrata Chatterjee) । অন্যদিকে বাংলার জনপ্রিয় গায়ক অনুপম রায় (Anupam Roy) পড়েছেন তীব্র বিড়ম্বনায়। আজ থেকে দু’বছর আগে করোনার সময় যখন গায়কের ঘর ভাঙে। তবে তখন অবশ্য তাকে নিয়ে এতটা শোরগোল হয়নি। এতটা সহানুভূতি পাননি গায়ক।‌কিন্তু পরমব্রত পিয়া চক্রবর্তীকে বিয়ে করে নেওয়ার পর থেকেই সহানুভূতি কুড়োচ্ছেন গায়ক।

উল্লেখ্য, নায়কের বিরুদ্ধে অভিযোগ‌ উঠেছিল গায়কের সংসারে ভাঙন ধরিয়েছিলেন টলিউড-বলিউড কাঁপানো এই অভিনেতাই। কপালে জুটেছে মীরজাফর তকমা। নিজের বন্ধুর ঘর ভেঙে তার স্ত্রীকে বিয়ে করে নেওয়ার কটাক্ষে বিদ্ধ হয়েছেন তিনি! বিচ্ছেদের পর অনুপম-পিয়ার মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক থাকবে এমনটাই জানিয়ে ছিলেন দুজনে। কিন্তু সে আর থাকেনি। আর এবার সেই পিয়া চক্রবর্তীর হয়ে উঠেছেন পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়ের ঘরণী। পরম-পিয়ার বিয়ে নিয়ে কখনই তির্যক মন্তব্য করেননি গায়ক।

তবে নিজের প্রাক্তনকে নিয়ে মুখ খুলে গায়ক বলেছিলেন, ‘আমার জীবনে পিয়াকে হারানো সবথেকে বড় ক্ষতি। ৩৯ বছরে এরকম বড় কিছু হারায়নি। তবে আমি ব্যাথাকে সঙ্গী করতে চাই না। আমার একটা স্ট্রং সাপোর্ট রয়েছে। পাশে মা-বাবা রয়েছেন। ৩৯ বছরে সম্পর্ক ভাঙা আর কলেজের ব্রেকআপের মধ্যে পার্থক্য রয়েছে।’

Back to top button