মিঠাই শেষ হওয়ার পিছনে দায়ী আদৃত কৌশাম্বীর সম্পর্ক! এবার মুখ খুললেন মিঠাই নির্মাতাদের মধ্যে অন্যতম একজন

বাংলার দর্শকের কাছে অত্যন্ত প্রিয় সর্বজনগ্রাহ্য একটি ধারাবাহিক হলো জি বাংলার (Zee Bangla) মিঠাই (Mithai)। ধারাবাহিকের প্রত্যেকটি সদস্যই দর্শকদের ভীষণ আদরের। হল্লা পার্টি থেকে শুরু করে প্রতিটি চরিত্র মন জিতে নিয়েছে দর্শকদের। বর্তমানে ধারাবাহিকটির সম্প্রচার বন্ধ হয়ে গিয়েছে। তবুও দর্শকদের মনে এখনো জীবন্ত এই ধারাবাহিক।

ধারাবাহিকটি চলাকালীন কম জল্পনা সমালোচনার মুখোমুখি হতে হয়নি মিঠাইকে। কখনো সিদ্ধার্থের সঙ্গে মিঠাইকে জুড়ে আবার কখনো অনস্ক্রিন দিদিয়ার সাথে সিদ্ধার্থের প্রেমকে জুড়ে নানা রকম ভাবে সমালোচিত হয়েছে এই ধারাবাহিক। তবে সবথেকে বড় বিষয় যেটি সামনে এসেছে সেটি হল অনেকেই মনে করেন মিঠাই ধারাবাহিকটি শেষ হয়ে যাওয়ার পিছনে অন্যতম কারণ আদৃত আর কৌশাম্বীর সম্পর্ক। কথাটা কতটা ঠিক? এই নিয়ে এবার মুখ খুললেন অনির্বাণ মুখার্জি মিঠাইয়ের সিনিয়র এক্সিকিউটভ প্রোডিউসার।

এদিন এক সংবাদ মাধ্যমের সামনে অনির্বাণ বললেন, “মিঠাই শেষ হয়ে যাওয়ার পিছনে যে সম্পর্কের কথা তোলা হচ্ছে সেটা ঠিক নয়। প্রতিটা জিনিসেরই একটা শেষ আছে। আমরা অনেকদিন আগেই ভেবেছিলাম ধারাবাহিকটিকে শেষ করার কথা। ধারাবাহিকটি যে সময় শেষ হয়েছে হয়তো তার দু’মাস আগে শেষ হতে পারতো বা হয়তো দুমাস পরে শেষ হতে পারতো। কিন্তু খুব বেশিদিন আর এই ধারাবাহিকটিকে টানা যেত না।”

তিনি আরো বলেন, “নায়ক নায়িকার মধ্যে মিল হয়ে যাওয়ার পর সেই ধারাবাহিক আর চলে না। মিঠাই আর সিদ্ধার্থের মধ্যে অনেকদিন আগেই মিল হয়ে গিয়েছে। সিদ্ধার্থ মিঠাইকে আই লাভ ইউ বলেছে ধারাবাহিক শুরু হওয়ার এক বছরেরও পরে। কারণ যখনই তাদের মধ্যে মিল ঘটে যাবে দর্শকদের আগ্রহ অনেকটা পড়ে যাবে। একটু একটু করে গল্প এগিয়েছে আর সেই মুহূর্ত চলে এসেছিল যে মুহূর্তের পর আর গল্পটাকে টানা যাচ্ছিল না।”

অর্থাৎ মিঠাই ধারাবাহিক শেষ হয়ে যাওয়ার পিছনে যে সম্পর্ককে দায়ী করে মিথ্যে হুজুক তোলা হচ্ছে তা পুরোপুরি অন্যায্য। এরকম কোন বিষয় এই ধারাবাহিকের শেষ হয়ে যাওয়ার কারণ নয় এমনটাই জানালেন অনির্বাণ। প্রত্যেকটি জিনিসের স্বাভাবিক নিয়ম অনুযায়ী শেষ হয়েছে এই ধারাবাহিক।

Back to top button