শুভশ্রীর দিদি এবার বাংলা সিরিয়ালে! রাজের শালিকা হওয়ায় কি এই সুযোগ? নেটিজেনদের মুখে নেপোটিসমের অভিযোগ

বর্তমানে টলিউডের একজন অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী হলেন শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায় (Subhashree Ganguly)। তাকে চেনেন না এমন বাঙালি হয়তো খুব কমই আছেন। বহু বছর ধরে টলিউড কে সমৃদ্ধ করে আসছে এই অভিনেত্রী। এইবার বাংলার উপরে জগতে নিজের নজির রাখছেন শুভশ্রীর দিদি দেবশ্রী। বড় পর্দায় অভিনয়ের পর এ বার ছোট পর্দায় নাম লেখালেন শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায়ের দিদি দেবশ্রী গঙ্গোপাধ্যায়। ধীরে ধীরে তিনিও ইন্ডাস্ট্রিতে নিজেকে সবার কাছে প্রতিষ্ঠিত করে তুলছেন তিনি।

দেবশ্রীর বোন শুভশ্রী টলিপাড়ার অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী। আর বোনের বর রাজ চক্রবর্তীও নামজাদা পরিচালক। জানা যায় পরিচালক রাজর্ষি দে-এর দৌলতে তিনি এখন অভিনেত্রী শুধু তাই নয়, বর্তমানে দর্শকম মহলে এক পরিচিত মুখ। এত দিন দেবশ্রীর বোন শুভশ্রীকেই দেখেছেন দর্শক। এবার সবার প্রিয় অভিনেত্রীর দিদিও ইন্ডাস্ট্রিতে নিজের জায়গা তৈরি করতে উঠে পড়ে লেগেছে।

খুব তাড়াতাড়ি আসছে লীনা গঙ্গোপাধ্যায় পরিচালিত নতুন সিরিয়াল ‘জল থই থই ভালবাসা’। দর্শকরা জানেন এই নতুন গল্পে মুখ্যচরিত্রে দেখা যাবে অপরাজিতা আঢ্য এবং চন্দন সেনকে। এই গল্পেই অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করছেন দেবশ্রী। কয়েক মাস আগে তাঁকে সম্পূর্ণ অন্য অবতারে দেখেছেন দর্শক। এর আগে ‘ফাটাফাটি’ ছবিতে তাঁর অভিনয় বেশ প্রশংসিতও হয়েছিল। এ বার নতুন ইনিংস শুরুর পালা।

এই মুহূর্তে নিজের নতুন কাজ নিয়ে খুবই উত্তেজিত দেবশ্রী। এক সংবাদমাধ্যমকে তিনি বললেন, “আমি সত্যিই আশাবাদী। অপরাজিতাদির সঙ্গে কাজ করার সুযোগ পাচ্ছি। বহু দিনের ইচ্ছা ছিল। এত দিন ভয় লাগত যে সময় দিতে পারব কি না। কারণ আমার একটা ছোট ব্যবসাও আছে। লীনাদির থেকে কাজের সুযোগ পেয়ে দ্বিতীয় বার ভাবিনি। এই সিরিয়ালের গল্পটাও একেবারে অন্য রকমের। আর ‘প্রাক্তন’-এর অপাদির ভক্ত আমি। এই সব মিলিয়ে ‘হ্যাঁ’ করে দিলাম।”

অনেকেই হয়তো জানেন না দেবশ্রীকে সই করানোর আগে ‘ম্যাজিক মোমেন্টস্‌’-এর তরফে প্রথম কল করা হয়েছিল শুভশ্রীর কাছে। তাঁর থেকেই দিদির যোগাযোগ নম্বর নেওয়া হয়। পরিচালক রাজ এবং শুভশ্রীর সঙ্গে আলোচনার পরেই এই কাজটির জন্য রাজি হয়েছেন দেবশ্রী। কানাঘুষো শোনা যায় স্টার জলসার মতো একটি গুরুত্বপূর্ণ চ্যানেলে এত বড় একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে দেবশ্রীর সুযোগ পাওয়াটা সম্পূর্ণই নেপোটিজমের ফল।

Back to top button