অসহায় বাবা মেয়ের পাশে দাঁড়ালো দেব! সুপারস্টার দেব পেলো ‘টলিউডের সনু সুদের’ উপাধি, নায়কের উদ্যোগে মুগ্ধ দর্শক

বর্তমান সমাজ খুবই স্বার্থপর নিজের আখের গোছানো ছাড়া আর কিছুই জানেনা। অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়ানোর বদলে পাশ কাটিয়ে যাওয়ার প্রবণতাই বেড়ে গিয়েছে বর্তমান সমাজে। খুব কম মানুষ রয়েছেন যারা অন্য এক অসহায় ব্যক্তিকে কাঁধ দেওয়ার ক্ষমতা এবং মানসিকতা বহন করেন। এইবার এমনই এক অসহায় মেয়ের পাশে এসে দাঁড়ালে মহানায়ক দেব।

হুগলির ধনিয়াখালি এলাকার চন্দ্রিনী চ্যাটার্জির বাবা বর্তমানে কলকাতার একটি বড় সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। চন্দ্রিনীর মা নেই, ২০১৯ সালে তিনি মারা গিয়েছেন। আজ থেকে দেড় বছর আগে চন্দ্রিনীর বাবার স্ট্রোক হয় এবং তার জন্য তিনি হাঁটা চলার ক্ষমতা হারিয়ে ফেলেন। কিন্তু তিনি নিজের খাবার নিজে খেতে পারতেন, এইটুকুনি ক্ষমতা তার মধ্যে ছিল।

হঠাৎ করেই দেড় মাস আগে থেকে তার শরীর খারাপের দিকে যায় যার জন্য চন্দ্রিনী স্থানীয় একটি হাসপাতালে ভর্তি করেন তার বাবাকে। সেই হাসপাতাল তার বাবাকে কলকাতার একটি নামকরা সরকারি হাসপাতালে স্থানান্তরিত করে। কিন্তু সেখানে তার অবস্থা দিন দিন খারাপ হতে থাকে। এরপর চন্দ্রিনী সেই সমস্ত নার্সিংহোম গুলির দ্বারস্থ হয় যেগুলি স্বাস্থ্য সাথী কার্ড এর অ্যতায় রয়েছে। কিন্তু স্বাস্থ্য সাথী কার্ড এর নাম শুনেই প্রতিটি নার্সিং হোম বেড নেই বলে তাকে বিতাড়িত করে।

এদিকে সরকারি হাসপাতালে তার বাবার অবস্থা আরো খারাপ হতে থাকছে। নার্স আয়া এদের খরচা দিতে দিতে জমানো টাকা প্রায় শেষ। চন্দ্রিনীর অভিযোগ, “এই নামকরা সরকারি হাসপাতালে বাবাকে প্রয়োজনীয় ওষুধটুকুও দেওয়া হচ্ছে না। ডাক্তার চারটে টেস্ট লিখে দিলে, একটা টেস্ট করিয়ে ফেলে রাখা হচ্ছে চোখের সামনে রোজ একটু একটু করে বাবাকে মরতে দেখছি।” সাহায্যের জন্য অনেক নেতা মন্ত্রীর কাছে গিয়েছে এই অসহায় মেয়েটি, কিন্তু সবাই কেবল আশ্বাস দিয়েছে কাজের কাজ কেউই করেনি। ফলে বাধ্য হই এক বেসরকারি সংবাদ সংস্থার ক্যামেরার সামনে নিজের সমস্ত ক্ষোভ উগ্রে দিলেন তিনি।

এই ভিডিওতে এই অসহায় মেয়েটি সুপারস্টার দেব, জিৎ সহ বিভিন্ন বড় বড় নেতাদের কাছে সাহায্যের কথা বলেন। এই ভিডিওটি দেবের এক ভক্ত পোস্ট করে দেবকে ট্যাগ করেন। আর কিছুক্ষণের মধ্যেই দেবের রিপ্লাই আসে তিনি বলেন তার টিম সবটা দেখে নিচ্ছে। যখন গোটা রাজ্যে কোন একজনের তরফ থেকেও সাহায্যের হাত এগিয়ে আসেনি এই অসহায় মেয়েটির দিকে ঠিক সেই সময় তার পাশে এসে দাঁড়ালেন দেব। একজন মহানায়ক হিসেবে আবারও নিজের যোগ্যতার উপযুক্ত প্রমাণ দিলেন তিনি।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Dev Adhikari (@imdevadhikari)

Back to top button