তারাকে ছাড়াই শেষ হল সন্ধ্যা তারা! শেষ পর্বে প্রধান নায়িকাই অনুপস্থিত! ক্ষিপ্ত দর্শক মহল

আজ থেকে বেশ কয়েক মাস আগে স্টার জলসার (Star jalsha) পর্দায় সম্প্রচার শুরু করেছিল সন্ধ্যা তারা। সেই সময় পারিপার্শ্বিক ধারাবাহিক গুলির তুলনায় বেশ জনপ্রিয় একটি ধারাবাহিকে (Bengali Serial) পরিণত হয়েছে সন্ধ্যা তারা (Sandhya Tara)। শুরুর দিক করে একেবারে জমে উঠেছিল প্রত্যেকটি প্লট। এই ধারাবাহিকের নায়িকা হিসেবে অভিনয় করতে দেখা গিয়েছে অন্বেষা হাজরা। নায়ক হিসেবে রয়েছেন নবাগত অভিনেতা সৌরজিত ব্যানার্জি। এই ধারাবাহিকের আরো এক নায়িকা হিসেবে ছিলেন অমৃতা দেবনাথ।

সন্ধ্যা তারা ধারাবাহিকটি যখন শুরু হয়েছিল তখন একটি বিষয় দর্শকদের মন কেড়ে নিয়েছিল আর সেটা হল, দুই বোনের মধ্যে এক নিষ্পাপ সম্পর্ক। এই সম্পর্কে কোন স্বার্থ ছিল না কোন প্রতিদ্বন্দ্বিতা প্রতিযোগিতা ছিল না প্রতিহিংসা ছিল না। যেটা ছিল সেটা শুধুই নিখাদ একটা ভালোবাসা আর অপরিকল্পনীয় আত্মত্যাগ। আর পাঁচটা ধারাবাহিককে বনে বনে মারামারি দেখতে দেখতে ক্লান্ত দর্শক এই ধারাবাহিকটিতে নিজেদের মনের শান্তি ফিরে পেতেন।

তারপরে হঠাৎ করেই গল্পে আসে নতুন চমক তবে সে সবকিছু টিআরপিতে তেমন প্রভাব ফেলতে পারেনি। যার ফল স্বরূপ জিতে যায় এই ধারাবাহিকের প্রতিযোগী মেগা এবং স্লট হারাতে হারাতে অনেকটা পিছিয়ে পড়ে সন্ধ্যাতারা। এরপর নানা রকম চমক এনেও ধারাবাহিকের টিআরপি আগের জায়গায় ফেরানো সম্ভব হয়নি তাই অকালে শেষ হয়ে যেতেন হচ্ছে এই ধারাবাহিককে।

এতদূর সব কিছুই মেনে নিয়েছিলেন ভক্তরা তবে একটা জিনিস তারা কিছুতেই মেনে নিতে পারলেন না আর সেটা হলো গল্পের শেষে এসে ধারাবাহিকের অন্যতম নায়িকা তারার অনুপস্থিতি। যে ধারাবাহিকের নামটাই দুই নায়িকাকে নিয়ে তৈরি সেই দুই নায়িকার মধ্যেই এক নায়িকা শেষ পর্বে ব্রাত্য! একটা খারাপ পরিণতি দেখিয়ে কেমন যেন সরিয়ে দেওয়া হলো তারাকে। যেখানে ধারাবাহিকটি শুরু হয়েছিল দুই বোনের ভালোবাসা স্নেহ প্রভৃতিকে কেন্দ্র করে সেখানে সেই গল্প একেবারে অন্যদিকে মোড় নিল। আগের কিছুই আর আগের মতন রইল না।

আরো পড়ুন: উৎসবকে বের করে কৌশিকী জ্যাসকে নতুন চ্যালেঞ্জ দিব্যার! অস্মিতাকে জেরা করে নতুন রহস্য পেল জ্যাস!

শেষবার তারা কি দেখা যায় যখন তার বিয়ে হয়েছে এমন একটি ছেলের সাথে যার ইতিমধ্যেই বিবাহিত। তারপর থেকে তারার আর কোন পাত্তা নেই। এই বিষয়টি একেবারেই ঠিক করলো না ধারাবাহিক কর্তৃপক্ষ এমনটাই দাবি দর্শক মহলের। শুরুটা যেভাবে হয়েছিল শেষটাও যদি ঠিক সেই ভাবেই হতো তাহলে হয়তো গল্পটা একটা পূর্ণতা পেতো। টিআরপি কম থাকার দরুন এই ধারাবাহিকের গল্পে এতটাই খাদ মেশানো হয়েছে এবং এতটাই অনীহা দেখানো হয়েছে সম্প্রচারে তা বর্তমান পর্বগুলি দেখে স্পষ্টই বোঝা যাচ্ছে। তার উপর দুই নায়িকার এক নায়িকাকে কোন পরিণতি দেওয়া হলো না। এই সমস্তটা একেবারেই মেনে নিতে পারছেন না ভক্তরা।

Back to top button