সোনা রূপার মানসিক চাপের কথা মাথায় নেই সূর্যর, নিজের পাগলামি করেই যাচ্ছে সে

দুটো বাচ্চার মানসিক অবস্থার কথা না ভেবেই প্রতিনিয়ত নিজের রাগ দেখিয়ে যাচ্ছে সূর্য

বর্তমানে স্টার জলসা (Star jalsha) চ্যানেলের একটি অন্যতম জনপ্রিয় ধারাবাহিক হচ্ছে অনুরাগের ছোঁয়া (Anurager Chowa)। প্রায় প্রতি সপ্তাহেই টিআরপির শীর্ষে থাকে এই ধারাবাহিকের নাম। বর্তমানে ধারাবাহিকের নায়ক সূর্যের উপর ক্ষেপে রয়েছে দর্শক মহল। তাদের মতে নায়ক হিসেবে একদমই যোগ্য নয় সূর্য।

এদিনের পর্বে দেখা যায়, সোনা আর রুপাকে সাথে করে নিয়ে বেরিয়ে গেছে সূর্য। বাড়িতে কেউ জানে না সেই বিষয়টা। অনেকক্ষণ ধরে সোনা আর রুপাকে না দেখতে পেয়ে চিন্তায় চিন্তায় পাগল হয়ে যাচ্ছে দীপা। আর অন্যদিকে কোন খবর নেই সূর্যর। অনেকবার ফোন করেও পাওয়া যাচ্ছে না তাকে।

Anurager chowa

সূর্য আর সোনা রুপা এদের কাউকেই পাওয়া যাচ্ছে না দেখে দীপার সন্দেহ হয় কোনভাবে ডাক্তার বাবু দুটো বাচ্চাকে নিয়ে কোথাও চলে যাননি তো? যত সময় যায় তত তার সন্দেহ আরো দৃঢ় হতে থাকে। এবং একটা সময় গিয়ে ভয় পেতে থাকে এক মায়ের মন। তবে কি এবার দুটো বাচ্চার কোন ক্ষতি করে দেবে সূর্য?

রাগে অভিমানে ভীষণভাবে প্রতিহিংসা পরায়ণ হয়ে উঠেছে সূর্য। সে এখন আর কারো কথা ভাবছে না। গাড়িতে ওঠার সময় কিছু না বুঝতে পারলেও কিছুটা যাওয়ার পর রুপা ঠিকই বুঝতে পেরেছে যে সূর্য কিছু একটা ঘটাতে চলেছে। সূর্যের কথাবার্তা মোটেই ভালো লাগছে না রুপার। সোনা তার বাচ্চা মন নিয়ে কোনরকম চিন্তা ছাড়াই ঘুরতে যাওয়ার আনন্দ উপভোগ করলেও রুপা তা কিছুতেই করতে পারছে না।

মাঝে সূর্য একবার আইসক্রিম আনতে গাড়ি থেকে নামলে রুপা তাড়াতাড়ি সূর্যের ফোনটা নিয়ে নিজের মাকে খবর দিতে উদ্যত হয়। কিন্তু তার মাঝেই চলে আসে সূর্য আর ফোনটা নিয়ে নেয় নিজের কাছে। এরপর একসঙ্গে একটা সেলফি তোলে। আর মনে মনে বলে পুজোর আগে আর দেখা হবে না এটাই এডভান্স গিফট। ঠিক কি করতে চলেছে সূর্য তা কেউই বুঝতে পারছে না? সে রাগে এতটাই অন্ধ হয়ে গেছে যে এই বিষয়গুলো দুটো বাচ্চার মানসিক অবস্থাকে ঠিক কতটা ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারে সেই দিকটাও চোখে পড়ছে না তার।

Back to top button