প্রথমবার নিজের মেয়ের জন্য শিমুলের শাশুড়ির ভালো রূপ চোখে পড়ল দর্শকদের, জানুন আজকের পর্ব

পুতুলের সঙ্গে খারাপ ব্যবহারের জন্য পলাশকে শাসন করল তার মা, শিমুলের শাশুড়ির এই রূপটা দেখে খুশি দর্শক

বেশ কিছুদিন হলো জি বাংলার (Zee Bangla) পর্দায় শুরু হয়েছে কার কাছে কই মনের কথা (Kar kache koi moner kotha)। যত দিন যাচ্ছে ধারাবাহিকের বাস্তববাদী চেতনা দর্শকদের মুগ্ধ করছে। সমাজের প্রায় বেশিরভাগ মেয়ে বউরাই শিমুলের সঙ্গে মিল খুঁজে পাচ্ছে তাদের জীবনের। টিআরপি তো বেশ ভালো ফল করছে এই ধারাবাহিক।

কাঠগোড়ায় শিমুল

বর্তমানে ধারাবাহিকের গল্প অনুযায়ী বাড়ির বাইরে তালা দিয়ে বিপাশার বাড়ি চলে যাওয়ায় বর্তমানে বাড়ির প্রত্যেকটি সদস্যের কাছে নানা রকম ভাবে অপমানিত হতে হচ্ছে শিমুলকে। সবার কাছে দোষী হয়ে গিয়েছে শিমুল। শিমুলকে একটা বড় শাস্তির দিকে উঠে পড়ে লেগেছে পলাশ। পলাশ নিজে ফোন বার করে দেয় শিমুলের বাড়িতে ফোন করে তার এই কীর্তি জানানোর জন্য।

শিমুলের মাকে অপমান করলেন শিমুলের শাশুড়ি

শিমুলের অনেক অনুরোধে কাজ হলো না। শিমুলের বাড়িতে ফোন করল শিমুলের শাশুড়ি। এরপর শিমুলের মাকে তাদের বাড়ির শিক্ষা সংস্কৃতি নিয়ে অনেক কথাই শোনালেন তিনি। আর তার পাশাপাশি শিমুলকে ওই বাড়ি থেকে বাপের বাড়িতে নিয়ে চলে যেতে বললেন। এমন কথা শুনে শিমুলের মা তার শাশুড়িকে বলে এমন ছোটখাটো ভুলের জন্য সদ্য বিবাহিত একটা মেয়েকে বাপের বাড়ি পাঠিয়ে দেবে এটা কেমন কথা হল। কিন্তু কোন কিছুই শুনতে চায় না শিমুলের শাশুড়ি।

পুতুলের হয়ে প্রবাদ করলো তার মা

অন্যদিকে এসবের মাঝে পুতুলের গায়ে হাত তোলে পলাশ। আর কথায় কথায় বলে ওঠে “এই সমস্ত হতে থাকলে এই মেয়েটা এই বাড়িতে থাকলে আমি আর এখানে থাকবো না বাড়ি ছেড়ে চলে যাব।” অনেকক্ষণ চুপ করে দেখছিলেন শিমুলের শাশুড়ি। কিন্তু এইবার নিজের মেয়ের হয়ে প্রতিবাদ করেন তিনি। পলাশের মা পলাশকে বলে, “কথায় কথায় বাড়ি ছেড়ে চলে যাব বললে কেমন লাগে বলতো?

মেয়েটাকে তো মেরে ফেলতে পারিনা, বাপ মরা মেয়ে আমার প্রথম সন্তান। বিয়ে দিয়ে দেব তার উপায়ও নেই আমার কাছেই রাখতে হবে। কিছু করলেই যে ওর গায়ে হাত তুলিস ওকে গালিগালাজ করিস কই বাজারে গেলে ওকে তো দুটো মিষ্টি এনে দিস না? ও কিন্তু ভালো মন্দ কিছু খাওয়ার আগেই জিজ্ঞাসা করে ভাইদের জন্য আছে কিনা। কই তোকে তো কখনো দেখিনি ওর জন্য ভাবতে। খালি কথায় কথায় বাড়ি ছেড়ে চলে যাব। এত অসুবিধা হলে ঠিক আছে চলে যা।” পুতুলের হয়ে তার মা এমন ভাবে প্রতিবাদ করবে এটা ভাবতেও পারেনি পলাশ। এই প্রথম শিমুলের শাশুড়ির একটা ব্যবহারে খুশি হয়েছে দর্শক মহল।

Back to top button