ঘরের মধ্যে ছাত্রী পড়ানোর নামে “কেচ্ছা” করতে গিয়ে শিমুলের কাছে ধরা পড়লো পরাগ! ছাত্রী কৈফিয়ত চাইলো শিমুলের কাছে!

জি বাংলা (Zee Bangla) চ্যানেলে সম্প্রচারিত একটি অন্যতম জনপ্রিয় ধারাবাহিক হচ্ছে কার কাছে কই মনের কথা (Kar kache koi moner kotha)। ধারাবাহিকের নায়িকা শিমুলের চরিত্রে রয়েছেন মানালি দে এবং নায়ক পরাগের চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যাচ্ছে দ্রোণ মুখোপাধ্যায়কে। পরাগের নোংরামি উত্তরোত্তর বেড়েই চলেছে।

ধারাবাহিকের বর্তমান প্লট অনুযায়ী, পরাগের থেকে টাকা নেওয়ার জন্য প্রথমে শিমুলকে সবাই ভুল বুঝলেও যখন পুতুল সমস্ত সত্যিটা সবাইকে বলে দেয় তখন সবাই শিমুলের কাছে হাত জোর করে ক্ষমা চেয়ে নেয়। কিন্তু এইবার একটা নতুন নাটক শুরু করলো পরাগ। টিউশন পড়ানোর নামে নিজের চরিত্রের আরও একটা খারাপ দিক ফুটিয়ে তুলছে সে।

ধারাবাহিকের এই দিনের পর্বে দেখা যায়, শিমুলকে পাড়ার সকলের তরফ থেকে দুর্গা পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়, আর এই পুরস্কারটা তার হাতে তুলে দেয় তার শাশুড়ি মা মধুবালা। এর পর দেখা যায় শিমুলের শশুর বাড়িতে এসে হাজির হয়েছে পরাগের নতুন স্টুডেন্ট। শিমুল তাকে যখন জিজ্ঞেস করে সে কিসে পড়ে, মেয়েটি জানায় সে কলেজে পড়ে। শিমুল তাকে বলে, পরাগ তো অনেক আগে বিএসসি পাস করেছে, সে কি পারবে পড়াতে? তখন সেই মেয়েটি বলে সে শুধু অঙ্ক করবে।

এরপর দেখা যায় পড়ানোর নামে ছাত্রীর সাথে বেশ গল্প করতে থেকে পরাগ। ছাত্রীর সিনেমা দেখা হয় কিনা, কি ভালোবাসে কি বাসেনা সব জানতে চায় পরাগ। শুধু তাই নয় নিজের সংসারে বউয়ের সঙ্গে ঝামেলা অশান্তি সবটাই ছাত্রের সঙ্গে ভাগ করে নেয় পরাগ। নিজেকে সে এমন ভাবে তার ছাত্রীর সামনে তুলে ধরে যেন বিয়ের পর তাকে একটুও শান্তি দেয়নি তার স্ত্রী।

ধারাবাহিকের আগামী পর্বে দেখা যাবে, গল্প করতে করতে হাসিতে ফেটে পড়ে শিক্ষক এবং ছাত্রী। ঠিক সেই সময় সেখানে চলে আসে শিমুল। সে বলে এটাই কি পড়াশুনা হচ্ছে? আর ঠিক তখন পরাগের ছাত্রী শিমুলকে বলে তার এতই যখন ইনসিকিউরিটি তখন স্বামীর সঙ্গে থাকে না কেন শিমুল? পরাগের ছাত্রীর এমন ঔদ্ধত্য দেখে অবাক হয়ে যায় শিমুল।

Back to top button