Kar kache koi moner kotha: ছেলেদের অন্যায় না দেখে মেয়ের অপমান মেনে নিচ্ছেন মেয়েই আপনাকে দেখবে! মধুবালাকে কড়া জবাব শিমুলের

বর্তমানে জি বাংলা (Zee Bangla) চ্যানেলে সম্প্রচারিত একটি অন্যতম জনপ্রিয় ধারাবাহিক হচ্ছে কার কাছে কই মনের কথা (Kar kache koi moner kotha)। ধারাবাহিকের নায়িকা শিমুলের চরিত্রে রয়েছেন মানালি দে এবং নায়ক পরাগের চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যাচ্ছে দ্রোণ মুখোপাধ্যায়কে। চলতি সপ্তাহে চতুর্থ স্থানে উঠে এসেছে এই ধারাবাহিকের নাম।

এ দিনের পর্বে দেখা যায় মন দিয়ে নাচ প্র্যাকটিস করছে শিমুল। সবাই মিলে এটি ছোট গ্রুপ তৈরি করেছে আর এই গ্রুপ নিয়েই জোরকদমে চলছে রিহার্সাল। কারণ আর কিছুদিন বাদেই রয়েছে প্রোগ্রাম। নিজেকে তুলে ধরার এমন সুবর্ণ সুযোগ হয়তো আর পাবে না সে। তাই এইবার নিজেকে প্রমাণ করেই ছাড়বে শিমুল।

অন্যদিকে দেখা যায় শিমুলের শ্বশুরবাড়িতে এসেছে পলাশের হবু স্ত্রী প্রতীক্ষা। সে এসে তার হবু শাশুড়ি মাকে যা নয় তাই বলতে থাকে। সে বলে শিমুলকে কে সাহস দিয়েছে আমার হবু স্বামীর বিরুদ্ধে ডিস্টিক ম্যাজিস্ট্রেট এর কাছে গিয়ে নালিশ করার? ওর দরকার কি ছিল ডিস্ট্রিক্ট ম্যাজিস্ট্রেট এর কাছে যাওয়ার?

তখন শিমুল প্রতীক্ষাকে বলে সে জানতে পেরেছে শতদ্রুর এই বাড়িতে নেমন্তন্ন করতে আসার পিছনে হাত রয়েছে অনুলেখার। আর এই অনুলেখা মেয়েটির থেকে শিমুলের অতীত সম্পর্কেও জানার চেষ্টা করা হয়েছে, আর সেটা করেছে প্রতীক্ষা। অর্থাৎ সে জেনে গিয়েছে এইসবের পেছনেই ছিল একটা নোংরা পরিকল্পনা আর সেটা করেছে প্রতীক্ষা আর পলাশ। তাই সে যদি চায় তার নামেও কমপ্লেন করতে পারে তখন প্রতীক্ষার চাকরি নিয়েও টানাটানি পড়বে এই শুনে ভয় পেয়ে যায় পলাশের হবু স্ত্রী।

ধারাবাহিকের আগামী পর্বে দেখা যাবে, সবার সামনে দাঁড়িয়ে শিমুল মধুবালাকে বলছে, আজ যে মেয়ে অসহায় বলে মধুবালা তার কুলাঙ্গার ছেলেদের তোল্লাই দিচ্ছে সেই মেয়ের জন্যই একদিন মধুবালার জীবনে সুখ শান্তি নেমে আসবে। সেই মেয়েই একদিন মধুবালাকে দেখবে।

Back to top button