বিজনেস পার্টনার বানিয়ে ঘুসি মেরে অনুভবের নাক ফাটিয়ে দিল সৃজন! পর্ণা শুরু করলো দত্ত বাড়ি হোমস্টেটের প্রস্তুতি!

আর পাঁচটা ধারাবাহিকের মতন কোনো বিশেষ উদ্দেশ্য ব্যতীত একেবারে সাদামাটা ঘরোয়া একটি গল্প নিয়ে শুরু হয় জি বাংলার (Zee Bangla) নিম ফুলের মধু (Neem Fuler Modhu) ধারাবাহিক। কিছু দিনের মধ্যেই দর্শক মহলে জনপ্রিয়তা পায় এই মেগা। এই ধারাবাহিকটি সব সময় নিজেদের আধুনিক প্লট পরিবেশন করে দর্শকদের একঘেয়েমি থেকে দূরে রেখেছে। তাই শুরু হওয়ার পর থেকেই প্রথম পাঁচে পাকাপাকিভাবে নিজের জায়গা করে নিয়েছে নিম ফুলের মধু।

বর্তমান গল্প অনুযায়ী, পর্ণা সৃজনের একসাথে তৈরি শাড়ির ব্যবসাটা একেবারে নষ্ট করে দেয় ইশা। শুধু তাই নয় জেঠুর দোকানটাকেও বন্ধ করে দেয় সে। অনেক বড় আর্থিক সংকটে পড়ে যায় দত্ত পরিবার। এই অর্থাভাব থেকে মুক্তি পেতে নতুন প্ল্যান তৈরি করে পর্ণা। দত্তবাড়িকে কাজে লাগিয়েই অর্থ উপার্জনের ব্যবস্থা করে সে। সেই প্ল্যান বাড়ির বাকিদের সাথে ভাগ করে নিলে তারাও খুব খুশি হয় এবং নতুন আসার আলো দেখতে পায়।

ধারাবাহিকের আজকের পর্বে দেখা যায়, পর্ণা দত্ত বাড়িকে নতুন করে সাজিয়ে তুলতে চায়। তাই বাড়ির রং, সাজ সজ্জা সব কিছু নিয়ে চিন্তা ভাবনা করতে থেকে সে। হিসেব করে পর্ণা সৃজনকে বলে, এখনো প্রায় ৩ লক্ষ টাকা কম পড়ছে তাদের। তখন সৃজন পর্ণাকে বলে এটাও যদি অনুভবের থেকে ধার করা যায়? পর্ণা বুঝতে পারেনা আবার কিভাবে টাকা চাইবে সে! তখন সৃজন বলে অনুভবকে বিজনেস পার্টনার বানিয়ে নিলেই আর ধারের প্রশ্ন থাকে না। কিন্তু পর্ণা ভাবতে থাকে সৃজন আর অনুভবের মধ্যে একেবারে মারপিট লেগে গেছে পর্ণাকে নিয়ে। ভয় পেয়ে পর্ণা বলে এসবের দরকার নেই। তবে সৃজন পর্ণাকে বোঝায়, সে এখন বদলে গেছে। আর ভয়ের কারণ নেই।

এর পর দত্ত বাড়ি সাজাতে শুরু করে পর্ণা। একে একে শাড়ি, নাড়ু সব কিছুর স্টল দেওয়া হয়। হোম স্টে এর সব কিছুও রেডি করে তারা। তালা পড়ে থাকা ঘর গুলোকে নতুন করে সাজিয়ে তবে দত্ত পরিবার। শুরু হয় পর্ণার দত্ত বাড়ি হোম স্টে। সমস্ত ছবি তুলে ওয়েবসাইট খুলে তাতে আপলোড করে দেয় তারা। আর দেখতে দেখতে আমাদের প্রথম কাস্টমার রুম বুক করে ফেলে।

এসব সহ্য করতে পারছিল না অয়ন আর মৌমিতা। তারা গোছানো ঘর কাদা লাগিয়ে সব ওলট পালট করে একেবারে নষ্ট করে দেয়। এদিকে চলে এসেছে তাদের প্রথম গ্রাহক। উষ্ণ অভ্যর্থনা জানিয়ে তাদের বরণ করে নেয় দত্ত পরিবার। যিনি এসেছেন তার বউ আবার খুব বাতিক গ্রস্ত। পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন না হলে তার চলে না। এর পর সবাইকে নিয়ে যাওয়া হয় ঘরে। দরজা খুলতেই তারা দেখতে পায় গোটা ঘর লন্ড ভন্ড হয়ে রয়েছে। এবার কিভাবে সবটা সামলাবে পর্ণা?

Back to top button