Icche Putul: ‘তুমি কি চিরজীবন আমার পাশে থাকবে?’ জিষ্ণুকে মনের কথা জানিয়ে প্রপোজ করলো মেঘ! আসছে নয়া মোড়

জি বাংলার (Zee Bangla) জনপ্রিয় একটি ধারাবাহিক হল ‘ইচ্ছে পুতুল’ (Icche Putul)। ধারাবাহিকে এখন আসছে ধামাকাদার পর্ব। সদ্য গিনির (Gini) বিয়ের ট্র্যাক শেষ হয়েছে। মেঘ (Megh) গিনির এই বিয়ে না হতে দিতে চাইলেও ময়ূরীর (Mayuri) চালাকিতে গিনির বিয়ে সম্পন্ন হয়। আসলে গিনির বর রূপ (Roop) একজন দুশ্চরিত্র ছেলে। সে গিনিকে ভালোবাসে না। অনেক মেয়ের সঙ্গে রূপের সম্পর্ক রয়েছে। সেসকল কথা শুনে গিনিকে মেঘ বারণ করে রূপকে বিয়ে করতে।

ময়ূরী (Mayuri) ইচ্ছা করে মেঘকে শ্বশুরবাড়ির সকলের সামনে বদনাম করে মেঘকে ভুল প্রমাণিত করে। মেঘ অপমানিত হয়ে বাপেরবাড়ি চলে যায়। মেঘ ঠিক করে সে নীলকে (Neel) ডিভোর্স দিয়ে নতুন জীবন শুরু করবে। এরমাঝেই মেঘের জীবনে আসে এক নতুন বন্ধু, জিষ্ণু। মেঘের গানের গুরুজীর এক বিশেষ ছাত্র জিষ্ণু (Jishnu)। তার সঙ্গে মেঘের ভালো বন্ধুত্ব তৈরী হয়। ময়ূরী এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে নীলের মনে আবারও মেঘ ও জিষ্ণুর নামে কু মন্তব্য ঢুকিয়ে দেয়। ময়ূরীর কথায় নীল জিষ্ণুকে নিয়ে মেঘকে সন্দেহ করে।

মেঘ প্রমান দিয়ে ময়ূরীর আসল রূপকে সকলের সামনে তুলে ধরলেও ময়ূরী চালাকি করে আবার মেঘের নামেই সব দোষ দিয়ে দেয়। নীল ঠিক করে, মেঘকে ডিভোর্স দিয়ে ময়ূরীকে বিয়ে করবে। মেঘ যদিও তাতে কোনও আপত্তি জানায়নি। অন্যদিকে, রূপ ধীরে ধীরে নিজের আসল মুখোশ মেলে ধরছে। দর্শকরা নিশ্চিত, বিয়ের পর গিনি নিজের ভুল বুঝতে পারবে। গিনি জানতে পারবে, রূপ আসলেই একটা লম্পট ছেলে।

অন্যদিকে, নীল ময়ূরীকে বিয়ে করতে রাজি হওয়ায় ময়ূরী খুব খুশি। পাশাপাশি মেঘ নীলের অপমানকে তোয়াক্কা না করে নিজের লক্ষ্যের দিকে এগিয়ে চলেছে। মেঘ এখন গান ও পড়াশোনা নিয়েই থাকতে চায়। এরমধ্যেই জিষ্ণুর সঙ্গে মেঘের সম্পর্ক খুব ভালোভাবেই গড়ে উঠেছে। জিষ্ণুও মেঘকে পছন্দ করে। তবে মেঘ এখনোও পর্যন্ত শুধুই জিষ্ণুকে বন্ধু ভেবে এসেছে। কিন্তু দর্শকরা চাইছেন, মেঘ যেন জিষ্ণুর সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন করে।

আরও পড়ুনঃ পূর্ন পরিবারেই মজে দর্শক! মিঠাই সিদ্ধার্থের ভরা সংসারের পর সূর্য দীপার সংসার দেখে মুগ্ধ দর্শক

ধারাবাহিকে আসতে চলেছে এক দারুন ট্যুইস্ট। গিনির সামনে রূপের আসলে মুখোশ খুলবে। এদিকে নীল ময়ূরীকে বিয়ে করার জন্য প্রস্তুতি নেবে। তবে কি এবার গিনি নীলের এই বিয়ে আটকাবে? ময়ূরীর মুখোশ এবার সকলের সামনে আনবে গিনি। যদিও মেঘ হয়তো আর নীলের কাছে ফিরে যাবে না। মেঘ জিষ্ণুর মতো বন্ধু পেয়ে খুব খুশি। তাই সে জিষ্ণুকে সারাজীবন পাশে রাখতে চায়। তবে কি মেঘ ধীরে ধীরে জিষ্ণুকেই ভালোবেসে ফেলছে?

Back to top button