গল্পে নয়া মোড়! আবারো শিমুলের বিরুদ্ধে মধুবালা, তবে এবার কুটনি শাশুড়ির পক্ষে নেটিজেন!

জি বাংলা (Zee Bangla) চ্যানেলে সম্প্রচারিত একটি অন্যতম জনপ্রিয় ধারাবাহিক হচ্ছে কার কাছে কই মনের কথা (Kar kache koi moner kotha)। বর্তমানে বেঙ্গল টপার হয়েছে এই মেগা। ধারাবাহিকের নায়িকা শিমুলের চরিত্রে রয়েছেন মানালি দে এবং নায়ক পরাগের চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যাচ্ছে দ্রোণ মুখোপাধ্যায়কে। নিজের শাশুড়ি মায়ের কথা ভেবে এবার এক মহৎ কাজ করলো শিমুল।

যারা এই ধারাবাহিকটির নিত্য দিনের সঙ্গী তারা জেনে থাকবেন, দশমীর দিন শিমুলকে বিষ খাওয়ায় তার স্বামী দেওর এবং দেওরের হবু স্ত্রী প্রতীক্ষা। এরপর শিমুল অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়। পুলিশের কাছে গিয়ে নালিশ অব্দি করে আসে বিপাশা সুচরিতারা।

পুলিশ যখন তদন্তের জন্য আসে তখন শিমুল বলে সে নিজেই বিষ খেয়েছে। এতে কারোর কোনো হাত নেই। পরাগ পলাশকে জেলে যাওয়ার হাত থেকে একেবারে বাঁচিয়ে দেয় শিমুল। তবে এই কথা শুনে বেশ রেগে যায় তার শাশুড়ি মা।

শিমুলের শাশুড়ি মধুবালা তাকে বলে, “এই কাজ করে তুমি একেবারেই ঠিক করোনি বৌমা। আমার ছেলে হোক বা যারই ছেলে হোক দোষ করলে শাস্তি তাকে পেতেই হবে। আর এত বড় দোষ করে তাদের কোন শাস্তি হলো না। ওরা আবারও এমন কাজ করতে পারে। ওদেরকে ছেড়ে দিয়ে তুমি অনেক ভুল করেছো।”

মধুবালার কথায় অভিভূত হয়ে যায় দর্শকমহল। এই মধুবালাই একদিন শিমুলের সঙ্গে যা নয় তাই ব্যবহার করেছে। আর সেই মধুবালা আজ তার বিচার বুদ্ধির জোরে দর্শকদের অনেক কাছের হয়ে উঠেছে। অন্যদিকে শিমুলের বিচার বুদ্ধি দেখে রীতিমতো বিরক্ত হচ্ছে তার ভক্তরা।

Back to top button