ধুন্ধুমার পর্ব! রূপের ব্যাপারে সব কথা বলে দিলো গিনি অন্যদিকে নীলের চাকরি খেলো মেঘ!

জি বাংলা (Zee Bangla) চ্যানেলে সম্প্রচারিত একটি চর্চিত এবং জনপ্রিয় ধারাবাহিক হচ্ছে ইচ্ছে পুতুল (Ichhe Putul)। এতদিন শক্তিশালী প্রতিপক্ষের জন্য কেমন জনপ্রিয় হতে পারছিলো না এই ধারাবাহিক। তবে এইবার স্লট পরিবর্তন হওয়ায় নিঃসন্দেহে সুদিন আসছে এই ধারাবাহিকের জন্য। এখানে নায়িকা চরিত্রে অভিনয় করছেন তিতিক্ষা দাস (Titiksha Das), খলনায়িকা চরিত্রে শ্বেতা মিশ্র এবং নায়ক হিসেবে মৈনাক ব্যানার্জী।

প্রতিনিয়ত গিনির সাথে দুর্ব্যবহার করে চলেছে রূপ। বারবার সে গিনিকে বুঝিয়ে দিচ্ছে যে তার জীবনে এসে একদম ঠিক করেনি গিনি। কিন্তু কেবলমাত্র বাবার সম্পত্তি পাবে না বলে এখনো সহ্য করে যাচ্ছে তাকে। এ দিনের পর দেখা যায় কাজের লোকের সঙ্গে কথা বলছিল গিনি। ঠিক সেই সময় সেখানে ঢুকে পড়ে শালিনী।

শালিনী আসতেই কাজের লোক ভয় পেয়ে ঘর থেকে চলে যায়। তখন শালিনী গিনিকে বলে, “তোমাকেই রূপকে ঠিক করতে হবে গিনি। তোমাকে আরো সহ্য করতে হবে। ওকে বোঝাতে হবে।” গিনি তখন শালিনীকে বলে রূপ কোন বাচ্চা ছেলে নয় ও যদি নিজে না চায় কেউ কিছু করতে পারবে না।

এরপর সেখানে আসে রূপ। সে এসে গিনিকে বলে, গিনি যেন তার শশুর মশাইকে এমন ভাবে বোঝায় যাতে তিনি তার সমস্ত সম্পত্তির অর্ধেক রূপের নামে লিখে দেন। গিনি এই কাজ করতে অসম্মতি জানালে গিনির গলা টিপে ধরে রূপ। শালিনী অনেক কষ্টে গিনিতে রূপের হাত থেকে বাঁচায়। এরপর রুপকে আলাদা করে ডেকে নিয়ে গিয়ে শালিনী বলে কাল যাতে সব ভালোয় ভালোয় মেটে তার ব্যবস্থা রূপকেই করতে হবে।

ধারাবাহিকের আগামী পর্বে দেখা যাবে, নিজের ঘরে বসে বসে গিনি ভাবছে, অনেক হয়েছে আর এই অত্যাচার সহ্য করবে না সে। এটাই মোক্ষম সুযোগ। এইবার বাড়ি গিয়ে রূপের এমন অমানবিক পাশবিক অত্যাচারের কথা সবাইকে জানিয়ে দেবে সে। তখনই ঘরে ঢোকে রূপ আর সেই আগের মতন সুন্দরভাবে ব্যবহার করে গিন্নির সাথে। তবে কি আবারও রূপের ফাঁদে পা দেবে গিনি?

Back to top button