মিস্টার এক্সের ব’ন্দু’কের ডগায় পিকলু! বি’প’দ থেকে বাঁচতে ড্রা’গ’সে জল ঢেলে দিলো সৃজন! রাগের বসে ফ্যাসাদে এক্স!

এই মুহূর্তে জি বাংলার (Zee Bangla) নিম ফুলের মধু (Neem Fuler Modhu) ধারাবাহিকটি চ্যানেলের সব থেকে জনপ্রিয় ধারাবাহিক হিসেবে নিজেকে প্রমাণ করেছে। এই ধারাবাহিকের নায়িকা তার অভিনয়ের মধ্যে দিয়ে হাজারো দর্শকের মন জয় করে নিয়েছে। নায়িকার বুদ্ধি সাহসিকতা সবটাই দর্শকদের এতটাই ভালো লেগেছে যে এই ধারাবাহিকটি বর্তমানে বেঙ্গল টপার এর স্থানে রয়েছে। এই ধারাবাহিকে নায়িকার চরিত্রে অভিনয় করছেন পল্লবী শর্মা এবং নায়কের চরিত্রে অভিনয় করছেন রুবেল দাস।

বর্তমান গল্প অনুযায়ী, পর্ণা আর সৃজন ছদ্মবেশ নিয়ে পিকলুকে উদ্ধার করতে চলে যায় লেবুখালী গ্রামে। কিন্তু সেখানে গিয়ে তারা দুজনেও ড্রাগস ডিলার মিস্টার এক্স এর কবলে পড়ে যায়। কিন্তু যাই হয়ে যাক না কেন তারা নিজেদের আসল পরিচয় কিছুতেই প্রকাশ পেতে দেয় না। পর্ণা মিস্টার এক্সকে রাগিয়ে দিয়ে তার দ্বারা এমন একটা ভুল করিয়ে ফেলতে চায় যেটাকে কেন্দ্র করে সেখান থেকে পালানোর সুযোগ পেয়ে যাবে তারা। এর জন্যই আগের দিন তিনটে ড্রাগস ভর্তি কুমড়ো সরিয়ে ফেলেছিল পর্ণা। কিন্তু এই ঘটনাটির পর থেকেই পর্ণার উপর সন্দেহ জন্মায় মিস্টার এক্সের। তার ওপর নজর রাখা শুরু করে মিস্টার এক্স।

ধারাবাহিকের আজকের পর্বে দেখা যায়, পর্ণার প্রশংসায় পঞ্চমুখ সৃজন। সে বলে, “তুমি আজ বাজিমাত করে দিয়েছো পর্ণা। কুমড়োর দানা খোসা সব দিয়ে এত সুন্দর রান্না করেছো যে এক্স বুঝতেই পারেনি কোথায় গেলো কুমড়ো গুলো।” পর্ণা বলে, সে এই সব কিছুই দত্ত বাড়ির হেঁসেলে শিখেছে। কিন্তু এখন প্রশ্ন হচ্ছে ড্রাগস এর প্যাকেট গুলো কোথায় লুকিয়ে রেখেছে পর্ণা? সে বলে, দলের মধ্যে সব লুকোনো আছে।

পর্ণা আবার একটা প্ল্যান বার করে। সে ঠিক করে ওই ড্রাগস গুলো কোনো না কোনো ভাবে নষ্ট করে দিতে হবে। তার জন্য আগে এই এক্সস্ট ফ্যানে একটা কারসাজি করতে হবে। যাতে বাইরের হওয়া ভিতরে না ঢোকে। পর্ণার কথা অনুযায়ী কাজ শুরু করে দেয় সবাই। সৃজন একটা দেশলাই বাক্স সাথে নিয়ে ঢোকে যাতে ড্রাগস গুলো পোড়াতে সম্ভব হয়। কিন্তু নিমাই বাবুটাকে আটকে দেয়। অন্যদিকে দারোগাবাবুর কাছ থেকে মিস্টার এক্স জানতে পেরে যায় ওই সাইন্টিস্টদের আসল পরিচয়।

নিমাইবাবু যখনই দেশলাইয়ের বাক্স নিয়ে ঢোকার জন্য সৃজনকে বকাবকি করছে তখন সেখানে চলে আসে মিস্টার এক্স। সে সৃজনকে প্রশ্ন করে, “সৃজন দত্তকে চেনেন?” এরপর সৃজন আর পিকলুকে ধরে ফেলে সে। মিস্টার এক্স বলে, তারা এখানে নিজেদের ইচ্ছায় এসেছে কিন্তু যাওয়াটা তাদের নিজেদের ইচ্ছায় হবেনা। আগুন জ্বালাতে না পারায় জল ফেলে ড্রাগস গুলো ভিজিয়ে দেয় সৃজন। সেই দেখে চিৎকার করে ওঠে মিস্টার এক্স।

Back to top button