নতুন মুখ নয় বরং জনপ্রিয় চ্যানেলে নায়ক হয়েছে মানালির নায়ক, এর আগেও বেশকিছু ধারাবাহিকে মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করে প্রশংসা পেয়েছেন

বাংলা টেলিভিশনের পর্দায় আসছে নতুন ধারাবাহিক ‘কার কাছে কই মনের কথা’। সদ্য এসেছে ধারাবাহিকের প্রোমো। বিয়ের পর বেশিরভাগ মেয়েরই শখ, আহ্লাদ, গুণ সব শিকেয় ওঠে। এই চিত্র ঘরে ঘরে। কারও বন্ধ হয়ে যায় লেখাপড়া, কারও গানবাজনা আবার কারও নাচ বা অন্যকিছু। এমনটাই ঘটবে আরও একবার। তবে, বাংলা ধারাবাহিকে। কার সঙ্গে ঘটবে এমনটা? জানা গিয়েছে এবার এই ঘটনার শিকার মানালি।

নতুন এই ধারাবাহিকে মানালির চরিত্রের নাম শিমুল। সে গান করে। শ্বশুর বাড়িতে আসার সময় মা তার সঙ্গে হারমোনিয়ামটিও পাঠিয়ে দেয়। কিন্তু শাশুড়ি মা সেটিকে গুদাম ঘরে রেখে আসতে বলে বাড়ির ছেলেদের। শিমুল গানের সার্টিফিকেট পেলেও তা দেখার সময় নেই স্বামী কিংবা শাশুড়ির। তাই সেই সার্টিফিকেট ছুঁড়ে ফেলে দেয় মানালি। কিন্তু তা কুড়িয়ে নিয়ে জোড়া লাগায় শিমুলের প্রতিবেশী সইয়েরা। তারা ছাদে গিয়ে চা পার্টি করে। ধারাবাহিকের নাম ‘কার কাছে কই মনের কথা’ হলেও গল্পের নায়িকার এখানে মনের কথা বলার মতো অনেক সই আছে তা বোঝাই যাচ্ছে।

Bengali serial
প্রথম প্রোমোতে ধরা দিয়েছেন মানালি দে, স্নেহা চট্টোপাধ্যায়, সৃজনী মিত্র, বাসবদত্তা চট্টোপাধ্যায়, কুয়াশা বিশ্বাস, ঋতা দত্ত চক্রবর্তী, দ্রোণ মুখোপাধ্যায়, সৌনক রায়। মানালি দে ‘ধুলোকণা’ শেষ হওয়ার পর কিছুদিনের ব্রেক নিয়েছিলেন। এবার ফিরছেন ফের লিড রোলে। ওদিকে বাসবদত্তাও লম্বা ব্রেক নিয়ে ফের ছোট পর্দায়। দ্রোণ মুখোপাধ্যায়কে দেখা যাবে মানালি দের বিপরীতে। অর্থাৎ নায়কের ভূমিকায়।

Bengali serial
স্কুল শিক্ষকের চরিত্রে দেখা যাবে দ্রোণ মুখোপাধ্যায়কে। অনেকের কাছেই দ্রোণ নতুন মুখ, তবে মোটেই তেমনটা নয়। এর আগে বেশ কিছু সিরিয়াল এমনকি ওয়েবেও কাজ করেছেন তিনি। আকাশ আটের ‘মেয়েদের ব্রতকথা’ মা ষষ্ঠীর ব্রততে দেখা মিলেছিল দ্রোণের। এই পিরিয়ড ড্রামায় প্রজাবৎসল জমিদার ইন্দ্রর চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন দ্রোণ।

Bengali serial
আকাশ আটে-র একাধিক সিরিয়ালে অভিনয় করেছেন দ্রোণ। মঞ্চেরও পরিচিত মুখ তিনি। বোলপুরের ছেলে, ইঞ্জিনিয়ারিং নিয়ে পড়াশোনা। আকাশ আটের পুলিশ ফাইলস থেকে শুরু করে ‘গল্প হলেও সত্যি’, ‘দীপাবলির সাতকাহন’-এর মতো সিরিয়ালে দেখা মিলেছে তাঁর। স্টার জলসার আমি সিরাজের বেগম ধারাবাহিকে অভিনয় করেছেন দ্রোণ।

Back to top button