অনিন্দ্য কোনোভাবেই মেঘের জীবনে আর নীলকে ফিরতে দেবে না বুঝতে পেরে খুশি ময়ূরী! এবার মেয়ের ভালোবাসায় বাঁধা বাবা নিজে!

নিজের স্বার্থ সিদ্ধি না হলে মানুষ কতটা হিংস্র হয়ে উঠতে পারে এবং নিজের রক্তের সম্পর্কের বোনকেও কিভাবে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দিতে পারে সেটাই দেখাচ্ছেu জি বাংলার (Zee Bangla) চ্যানেলের ইচ্ছে পুতুল (Ichhe Putul)। শুরু থেকে অন্য ধারাবাহিকের কপি বলে বেশ কিছুদিন সমালোচিত হলেওu বর্তমানে বেশ আকর্ষণীয় হয়ে উঠেছে এই মেগা।

বর্তমান প্লট অনুযায়ী, মন থেকে না চাইলেও অনিন্দ্যর কথা মত নীলকে ফিরিয়ে দেয় মেঘ। কারণ সেই একদিন নিজের বাবাকে বলেছিল, সে যদি কোনদিনও ফিরতে চায় তাকে যেন আটকায় তার বাবা। আরো একবার কোনো অনিষ্টের মধ্যে পড়তে চায়না মেঘ।

আরো পড়ুন: রনির হাতে পড়ে গেল রুচিরা, পর্ণাকে সামনে দেখেই তার দিকে বন্দুক তাক রনির! রুচিরাকে ছেড়ে এবার পর্ণাকে সরানোর ফন্দি!

ধারাবাহিকের এই দিনের পর্বে দেখা যায়, নীলের কষ্ট সহ্য করতে পারছে না তার পরিবারের লোকজন। তাই সবাই দলবল বেঁধে চলে যায় মেঘের বাড়ি। কারণ তারা বুঝতে পেরেছে মেঘ আজ যেই কথাগুলো বলেছে সেগুলো অনিন্দ্য তাকে শিখিয়ে দিয়েছে।

মেঘকে নিয়ে যখন অনিন্দ্য আর ঠাম্মির মধ্যে কথাবার্তা চলছে তখন ময়ূরী খুব ভালো করে বুঝতে পেরেছিল তার বাবা চায়না মেঘকে নীলের কাছে পাঠাতে আর এর থেকে ভালো কিছু তো হতেই পারে না। সে মেঘের ঘরে গিয়ে তাকে কিছুটা উত্যক্ত করার চেষ্টা করে।

Bengali serial

ঐদিকে ঠাম্মি অনিন্দ্যকে বলে সে একবার মেঘের মুখ থেকে শুনতে চায় যে সে আর নীলের সাথে থাকতে চায় না। কিন্তু অনিন্দ্য মেঘের সাথে তাদেরকে দেখা করতে দিতে নারাজ কারণ অনিন্দ্য জানে মেঘ নীলের প্রতি দুর্বল হয়ে পড়েছে তাই এখন যদি এত মানুষ তাকে নিয়ে যেতে চায় মেঘ হয়তো নিজেকে আটকাতে পারবে না।

Back to top button