এইবার সেয়ানে সেয়ানে টক্কর! বৈদেহি মুখার্জীকে খুঁজে পেয়ে গেল জগদ্ধাত্রী, তার চালেই তাকে মাত দিল জ্যাস!

বর্তমানে জি বাংলার (Zee Bangla) প্রতিটি ধারাবাহিকই টিআরপিতে বেশ ভালো অবস্থায় রয়েছে। তবে তার মধ্যে অন্যতম জনপ্রিয় বলতে যার কথা প্রথমেই মাথায় আসে সে হলো জগদ্ধাত্রী (Jagaddhatri)। এই ধারাবাহিকের রহস্য রোমাঞ্চ রোজ মুগ্ধ করছে ভক্তদের।প্রতি সপ্তাহেই নায়িকার অ্যাকশন বাজিমাত করে টিআরপি তালিকায়। তবে গত সপ্তাহে দ্বিতীয় স্থানে চলে এসেছে এই মেগা। দর্শকদের ধারণা চলতি সপ্তাহে আবার নিজের জায়গা ফিরে পাবে এই মেগা।

ধারাবাহিকের বর্তমান প্লট অনুযায়ী, বৈদেহি মুখার্জী জগদ্ধাত্রী এর উপর পাল্টা চাল দেয়। সে চেষ্টা করে উপলকে স্বয়ম্ভুর নামটা কি উৎসবের জায়গায় স্থানান্তরিত করার। আর সেটা সে করেও ফেলে। আর এই গোটা বিষয়টা বুঝতে পেরে যায় জগদ্ধাত্রী। কেন সকাল থেকে বাড়িতে নেই বৈদেহি মুখার্জী সেটা আর অজানা থাকে না তার কাছে। সে স্বয়ম্ভুকে কথা দেয়, জগদ্ধাত্রী এর বুদ্ধি ঠিক সমস্ত শয়তানদের বিনাশ করবে। তাই সে যেন চিন্তা না করে। অন্যদিকে, ঋষির বিষয়টাও বেশ ভাবতে থাকে তাকে। এই সব কিছুর মধ্যে একজন তৃতীয় ব্যক্তি রয়েছে, তাকে খুঁজে বের করতে পারলেই আসল সত্যিটা প্রমাণ করা যাবে।

ধারাবাহিকের আজকের পর্বে দেখা যায়, রান্নার সমস্ত জিনিসপত্র ফেলে দিতে গেলে প্রীতি আর মেহেন্দিকে করা গলায় ধমক দেয় জগদ্ধাত্রী। প্রত্যেকে বৈদেহি মুখার্জীকে নিয়ে চিন্তা করতে থাকলে জগদ্ধাত্রী বলে, যে নিজের থেকে হারিয়ে গেছে তাকে খুঁজে পাওয়া যায় না। জগদ্ধাত্রী বলে, সে একটা চাল চেলেছিল। আর এই মুহূর্তে সেটারই উল্টো চাল দেওয়া হচ্ছে তাকে। কিন্তু যারা এসব করছে তাদের কোন লাভ হবে না। কেউ কোন সুবিধা করে উঠতে পারবে না। কারণ শেষ হাসিটা জগদ্ধাত্রীই হাসবে। কথাটা শুনে বেশ ভয় পেয়ে যায় প্রত্যেকে। কারণ জগদ্ধাত্রী যা বলে সেটা সে করেই ছাড়ে।

যে ওলা ভাড়া করে বৈদেহি মুখার্জী উপল মৈত্রের কমপ্লেক্সে গিয়েছিল সেই ড্রাইভারকে খুঁজে পেয়ে যায় জগদ্ধাত্রী। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলেও সে কিছু বলতে চায় না। এরপর একটা চড় কষিয়ে দিতেই সমস্ত কিছু উগরে দেয় সে। সেই ড্রাইভার বলে, বৈদেহি মুখার্জী তাকে নামার সময় ৫০০ টাকা দিয়েছিল যেটা আর ফেরত নেয়নি। আর এই টাকার লোভেই সে চুপ করেছিল। জগদ্ধাত্রী বলে, তাহলে দুয়ে দুয়ে চার হয়ে গেল। প্রমাণ হয়ে গেল উপল মৈত্রের কাছে গিয়েছিল বৈদেহি মুখার্জী।

আরো পড়ুন: অবশেষে পর্ণার বুদ্ধিতে সবার সামনে অয়নকে জুতোপেটা করল অখিলেশ, সমস্ত টাকা ফিরে পেল সৃজন!

বাড়ি আসতেই রাজনাথ জগদ্ধাত্রীকে জিজ্ঞাসা করে বৈদেহি এখন কোথায় আছে? জগদ্ধাত্রী বলে, “উনি চরম অন্যায় করেছেন। উনি উপল মৈত্রের কমপ্লেক্স-এ গিয়ে সাক্ষীর রায় বদলানোর চেষ্টা করেছেন। আর এই এত বড় অন্যায়ের শাস্তি তো তাকে পেতেই হবে। ওনাকে ঠিক খুঁজে পাওয়া যাবে। খুব বেশিদিন লুকিয়ে থাকতে পারবেন না বৈদেহি মুখার্জী।” এই সবকিছু শুনে রাজনাথ তাকে বলে, তারা যেন এই বাড়ি থেকে বেরিয়ে যায়। তখন জগদ্ধাত্রী রাজনাথকে বলে, “স্বয়ম্ভু আপনার ছেলে কিন্তু আপনি সেটা কোনদিনও স্বীকার করেননি। আমি ডিএনএ টেস্ট করে প্রমাণ করে দেবো যে ও আপনারই ছেলে। তার আগে অনেক বড় অপরাধীকে শাস্তি দেওয়া বাকি।”

Back to top button