‘ওর মধ্যে শেখার ভীষণ স্পৃহা!’ ‘দাদার মতো আগলে রাখে’, একে অপরকে নিয়ে মুখ খুললেন পর্দার তোতা-আসমান

বাংলা টেলিভিশনের দুনিয়ায় বেশ কিছু ধারাবাহিক অল্প সময়ের মধ্যে দর্শক মনে রাজত্ব করা শুরু করেছে। আর তার মধ্যে অন্যতম উল্লেখযোগ্য ধারাবাহিক হলো জল থ‌ই থ‌ই ভালোবাসা। লীনা গঙ্গোপাধ্যায়ের (Leena Ganguly ) প্রযোজনায় এই ধারাবাহিকটি ফের একবার বাঙালি দর্শকদের মন জিতে নিয়েছে।

হাসি, কান্না, প্রেম, ভালোবাসা, আনন্দের এক জমাটি আসর এই ধারাবাহিকটি। এই মুহূর্তে এই ধারাবাহিকে এক জমজমাট পর্ব চলছে। এই ধারাবাহিকে দেখা যায়, তোতার সঙ্গে রূপের বিয়ে ঠিক হয় কিন্তু বিয়ের ঠিক আগের দিন তোতাকে কিডন্যাপ করে নিয়ে যায় আসমান। এই আসমান তোতাকে কিডন্যাপ করে কারণ তোতার বাবার জন্য পড়াশোনায় তুখোড় আসমানের এডুকেশন ক্যারিয়ার নষ্ট হয়ে গিয়েছিল।

কিন্তু এরপর জানা যায় যে আসমানের মা আর রূপের মা আসলে একজনই মানুষ। দর্শনা চ্যাটার্জী। আসমানকে জন্ম দেওয়ার পর শুধুমাত্র টাকার লোভে স্বামী সন্তানকে পরিত্যাগ করে চলে গিয়েছিলেন, তখন তোতা ঠিক করে রূপের সামনে তার মায়ের মুখোশটা সে খুলে দেবে আর সেটাই দিয়েছে সে। ধীরে ধীরে তোতার মনে আসমানকে নিয়ে প্রেমের আভাস পাওয়া যাচ্ছে। যদিও আসমানের মনে এই রকম কোনো ভাবনা-চিন্তা নেই। সে নতুন করে পড়াশোনা করা শুরু করেছে। যদিও তোতা আসমানের জুটি মনে ধরেছে দর্শকদের।

তোতার চরিত্রে অভিনয় করছেন অভিনেত্রী অনুষা বিশ্বনাথন। আর আসমানের চরিত্রে অভিনেতা ইন্দ্রাশিষ রায়। একটি সাক্ষাৎকারে অভিনেতা জানিয়েছেন, এই প্রথম নয়! অনুষার সঙ্গে এর আগেও কাজ করেছেন তিনি ‘দুর্গা সহায়’ ছবিতে।‌ এক‌ইসঙ্গে অভিনেতা বলেছেন, অনুষা তার থেকে অনেকটাই ছোট। তিনি তাকে খুবই ভালোবাসেন। একইসঙ্গে অভিনেত্রীর প্রশংসা করে তিনি বলেন অনুষার মধ্যে শেখার স্পৃহাটা ভীষণ। সেই কারণেই তিনি বিশেষ।

ইন্দ্রাশিষ সম্পর্কে অভিনেত্রীর অভিমত একেবারে দাদার মতো আগলে রাখেন তিনি। অনেক কিছু শিখেছেন‌ও তিনি অভিনেতার থেকে। এরপর প্রেম প্রসঙ্গে অভিনেত্রী বলেন তার একটি প্রেম হয়েছিল স্কুল জীবনে স্কুল থেকে সেই সম্পর্ক কলেজে এসে পৌঁছায়। কিন্তু প্রেমটা টেকেনি। পর্দায় অন্যের বিয়ে ভাঙলেও বাস্তব জীবনে কিন্তু অনেকের বিয়ের কাজে সাহায্য করেছেন অভিনেতা বলে জানিয়েছেন। একই সঙ্গে এমন অনেক বন্ধুর প্রেমে সাহায্য করেছেন যারা বর্তমানে বিবাহিত।

Back to top button