মুখোমুখি উৎসব জ্যাস আর কৌশিকী মুখার্জী, উৎসবের হাতে হাত করা পরালো জগদ্ধাত্রী!

সময়ের চাইতেও দ্রুত গতিতে এগোচ্ছে জি বাংলার (Zee Bangla) জগদ্ধাত্রী (Jagaddhatri) ধারাবাহিক। শুরু হওয়ার পর থেকেই ধারাবাহিকটি মন জয় করে নিয়েছে দর্শকদের। একসময় এক কঠিন প্রতিযোগিতার মধ্যে দিয়ে যেতে যেতে অবশেষে দীর্ঘ কয়েক মাস ধরে প্রথম স্থানে বহাল রয়েছে এই ধারাবাহিক। টিআরপিতে এই ধারাবাহিকের প্রাপ্ত স্থান একেবারে শীর্ষে।

ধারাবাহিকের বর্তমান গল্প অনুযায়ী, কৌশিকী মুখার্জীকে গুলি করার পর থেকেই অপরাধীদের ধরার জেদ চেপেছে জগদ্ধাত্রীর মনে। তখন থেকেই সে চেষ্টা করে চলেছে কিভাবে আসল অপরাধীদের ফাঁদে ফেলা যায়। অবশেষে সেই দিনটা এসে গিয়েছে তাদের সামনে। একটা প্রশ্নই তাদেরকে বেশ ভাবাচ্ছিল কিন্তু এই দিনের পর্বে সেই প্রশ্নের উত্তর পেয়ে গিয়েছে তারা। এখন শুধু উৎসব মুখার্জির হাতে হাত করা পরানোর পালা।

ধারাবাহিকের আজকের পর্বে দেখা যায়, ঠিক যেমনটা ওই রিসোর্টে হয়েছিল সেই রকমটাই আরও একবার ঘটানো হয় উপল মিত্রের সামনে। ঠিক একরকম জিনিসপত্র ঘটায় উপপ আগের মতনই গুলি চালায়। কিন্তু জগদ্ধাত্রীকে নিশানা করলেও গুলিটা ছড়ে কৌশিকীর গায়ে। ভুল নিশানায় গুলি চালিয়ে উপর চিৎকার করতে করতে বলে ওঠে, এটা খুন হয়েছে তার নিশানা ভুল হয়েছে, “উৎসব মুখার্জী সব তোমার জন্য হয়েছে।” অবশেষে আসল কথাগুলো বার করা গিয়েছে উপলের মুখ থেকে এটা ভেবেই শান্তি পায় জগদ্ধাত্রী। তাহলে প্রমাণ রেডি এবার শুধু অপরাধীদের ধরার পালা।

এদিকে দেখা যায়, উৎসব মেহেন্দি চন্দ্রনাথ বৈদেহি সবাই চলে এসেছে তাদের গ্রান্ড পার্টিতে। আজকেই হতে চলেছে তাদের ক্ষমতার হস্তান্তর। একে একে সমস্ত অফিসের স্টাফ এবং উচ্চ পদস্থ কর্মচারীরা পার্টিতে প্রবেশ করছে। আজ ভীষণ খুশি উৎসব আর মেহেন্দি। অবশেষে সেদিনটা এসেছে যেইদিন সমস্ত কিছুর শীর্ষে স্থান করে নেবে তারা। একটু পরেই সেখানে ঢুকে পড়ে বিজু গাইন। তাকে দেখে ভীষণ রেগে যায় উৎসব কিন্তু সবাই সামনে থাকায় কোনরকম উত্তেজনায় প্রকাশ করতে পারে না। এরপর সেখানে আসে মেনন। তাকে একেবারেই পছন্দ করেনা উৎসব কিন্তু আবারও জনসমক্ষে তার কিছুই বলার উপায় থাকে না।

মেনন কৌশিকী মুখার্জীকে ফোন করে বলে এদিকে সমস্তটা তৈরি হয়ে গিয়েছে, এবার শুধু তাদের আসার অপেক্ষা। তখনই গাড়ি নিয়ে সেখানে ঢুকে পড়ে জগদ্ধাত্রী। একদিকে ক্ষমতা পাওয়ার আনন্দে হৈচৈ করছে উৎসব মেহেন্দি আর অন্যদিকে সমস্ত সাক্ষ্যপ্রমাণ সহ তাদের ধরতে সেখানে প্রবেশ করছে কৌশিকী আর জগদ্ধাত্রী। মুখোমুখি হতে চলেছে তারা। শেষমেষ সমস্ত খেলা শেষ হলো উৎসব বৈদেহির।

Back to top button