গুলি চালাতে বলেছিল বৈদেহি মুখার্জী! জগদ্ধাত্রীর সামনে সব স্বীকার করে নিল উপল!

একনাগাড়ে নিজের জনপ্রিয়তা বজায় রাখা মোটেই সহজ সাধ্য নয়। সেটা করতে গেলে প্রয়োজন এমন এক আকর্ষণীয় গল্পের যাতে দর্শকরা সেখান থেকে নিজেদের চোখ সরাতে না পারেন। আর ঠিক এমন এক গল্প পরিবেশনে সফল হয়েছে জি বাংলার (Zee Bangla) জগদ্ধাত্রী (Jagaddhatri)। ৮ থেকে ৮০ সব বয়সী দর্শকদের কাছে প্রিয় হয়ে উঠেছে এই ধারাবাহিক। ধারাবাহিকের টিআরপি থাকে একেবারে শীর্ষে।

বর্তমানে গল্প অনুযায়ী, কৌশিকী মুখার্জীকে কে গুলি করেছিল? শুধুমাত্র এই একটা প্রশ্ন তাড়া করে বেড়াচ্ছে জগদ্ধাত্রীকে। এই প্রশ্নের উত্তর পেয়ে গেলেই সবটা পরিষ্কার হয়ে যাবে সবার কাছে। আর এই মুহূর্তে সেটাই করার চেষ্টা করছে জগদ্ধাত্রী আর স্বয়ম্ভু। তাদের পাশে ছায়ার মতন রয়েছে কৌশিকী মুখার্জী।

ধারাবাহিকের আজকের পর্বে দেখা যায়, ঠিক খুঁজে বের করে সুপ্রকাস ধরের নাগাল পেয়ে গিয়েছে জগদ্ধাত্রী। সেখানে গিয়ে সে উপল মিত্রর খোঁজ করতে থাকে। কিন্তু ডক্টর কিছুতেই তার মুখ খুলতে চায় না। কারণ বৈদেহি মুখার্জীর থেকে অনেক গুলো টাকা আত্মসাৎ করেছে সে। কিন্তু সে হয়তো জানে না জগদ্ধাত্রী কে। কোন খোঁজ খবর দিতে রাজি না হলে জগদ্ধাত্রী তাকে বলে, “আমি পুলিশের স্পেশাল ফোর্স থেকে এসেছি, ভালো কথায় যদি কাজ না হয় তাহলে কিন্তু শুট করে দেবো।” ভয়েতে সবটা বলতে রাজি হয় সুপ্রকাস।

এরপর সে জগদ্ধাত্রীকে নিয়ে যায় ওপালের কাছে। সেখানে গিয়ে জগদ্ধাত্রী বুঝতে পারে উপল মানসিক ভাবে অসুস্থ। বার বার সে খালি শুট করার কথা বলে। কাকে কেনো গুলি করবে সেটা কিছুতেই বলে না। এরপর জগদ্ধাত্রী উপলকে জিজ্ঞাসা করে কে তাকে গুলি করার কথা বলেছিল, কিন্তু উপল কিছুই মনে করতে পারে না। ঠিক তখনই উপলের কাছে ফোন করে বৈদেহি মুখার্জী। ব্যাস সাতটা জলের মতন পরিষ্কার হয়ে যায় জগদ্ধাত্রির কাছে।

আরও পড়ুনঃ চুপি চুপি বিয়ে সেরে ফেললেন মা সিরিয়ালের ঝিলিক! কাকে বিয়ে করলেন অভিনেত্রী তিথি?

এর মধ্যেই কৌশিকী ফোন করে জগদ্ধাত্রীকে। সে বলে, “দেবু কিছু একটা সন্দেহ করে আমার ঠিকানা পেয়ে গিয়েছে এবার আমাকে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব এখান থেকে অন্য কোথাও চলে যেতে হবে। যদিও ও আমাকে দেখেনি তার আগেই ওর অবস্থা খারাপ হয়ে গিয়েছে।” জগদ্ধাত্রী বুঝতে পারে হতে সময় কমে আসছে। এদিকে চন্দ্র বদন দেবুকে বাড়ি নিয়ে যেতেই ভয় পেয়ে যায় সবাই। কেউ বুঝতে পারে না যে এমন অবস্থা কে করতে পারে।

Back to top button