জ্যাসকে মারার প্ল্যানে জল ঢেলে আসল অপরাধীদের হাতেনাতে ধরে উচিত শিক্ষা দিল জগদ্ধাত্রী!

সৎ মানুষদের একেবারেই সহ্য করতে পারে না সমাজের আর পাঁচটা অসৎ মানুষ কারণ এই মানুষটার জন্য তাদের অনেক কাজ আটকে যায়। ঠিক যেমনটা এই মুহূর্তে জি বাংলার (Zee Bangla জগদ্ধাত্রী (Jagaddhatri) ধারাবাহিকের নায়িকার জন্য অনেক অন্যায় আটকে যাচ্ছে অপরাধীদের। কারণ এই ধারাবাহিকের নায়িকা অন্যায় সহ্য করতে পারে না। শুরু থেকেই তার সততা এবং সাহসিকতা মন জয় করে নিয়েছে ভক্তদের।

ধারাবাহিকের বর্তমান প্লট অনুযায়ী, দোলের দিন জগদ্ধাত্রীকে শেষ করে ফেলার প্ল্যান করে ফেলে লিলিপুট টিটু আর তুষার তীর্থ। আর এই কাজে তারা জোর করে সাহায্য নেওয়ার চেষ্টা করে বৈদেহি মুখার্জীর থেকে। কিন্তু তারা হয়তো বুঝতে পারেনি তাদের চাল এমন ভাবে তাদের ওপর এই উল্টো ধেয়ে আসবে। কারণ জগদ্ধাত্রীকে হারানো এত সহজ নয়। তার বুদ্ধির কাছে সবাই হার মানতে বাধ্য।

ধারাবাহিকের আজকের পর্বে দেখা যায়, সবাই খুব আনন্দ করে দোল খেলছে। মেয়েরা তাদের নিজেদের স্বামীকে চিনতে পারে কিনা সেই খেলা এখন অবধি জারি রয়েছে। তারপরের সবাই মিলে একে অপরের গায়ে রং লাগিয়ে এই আনন্দ উৎসব উদযাপন করছে। এর মাঝেই কাছাকাছি আসছে ধারাবাহিকের নায়ক নায়িকা। সব মিলিয়ে একটা সুন্দর পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে। কৌশিকী সমরেশও এই আনন্দ উৎসবে অংশগ্রহণ করতে পেরে ভীষণ খুশি। হঠাৎ করেই একটি লোক কাঁকন এর দৃষ্টি আকর্ষণ করে।

সে দেখতে পায় একজন ব্যক্তি আড়াল থেকে জগদ্ধাত্রী দিকে বন্দুক ত্যাগ করে রয়েছে। সে কি করবে কিছুই বুঝতে পারেনা তাই তাড়াতাড়ি নিজের মা-বাবার কাছে চলে যায়। আর তাদেরকে সেই লোকটার দিকে ইশারা করে। আর ঠিক তখনই শুট করে ওই গুন্ডা। কিন্তু স্বয়ম্ভু ঠিক সময় জগদ্ধাত্রীকে সেখান থেকে সরিয়ে নিয়ে প্রাণে বাচায়। তারপর তাদেরকে ঘিরে ফেলে বাকি গুন্ডারা। দোল খেলার মাঝেই শুরু হয় মারপিট। সবাইকে ধরাশায়ী করে ফেলে স্বয়ম্ভু আর জগদ্ধাত্রী।

এরপর জগদ্ধাত্রী চলে যায় তুষার তীর্থ তলাপাত্রের বাড়ি। সেখানে গিয়ে দাঁড়াতেই অবাক হয়ে যায় টিটু কারণ সে ভেবেছিল জগদ্ধাত্রী মরে গিয়েছে। জগদ্ধাত্রী তাদেরকে একটা কল রেকর্ডিং শোনায় যেখানে লিলিপুট বৈদেহিকে ফোন করে তাদের হয়ে কাজ করার কথা বলছিল। ওখানে উপস্থিত প্রত্যেকে বুঝতে পারে জগদ্ধাত্রীর কাছে উপযুক্ত প্রমাণ রয়েছে। তাই এখন আর কোনোভাবেই জগদ্ধাত্রীকে আটকানো সম্ভব নয়। এবার তাদের তিনজনকেই গ্রেফতার করবে জ্যাস সান্যাল।

 

Back to top button