মুকুটের মৃত্যুতেই সবশেষ! কী হতে চলেছে জি বাংলার মুকুট ধারাবাহিকের শেষে ফাঁস হল দুদিন আগেই

জি বাংলায় (Zee Bangla) আর কিছুদিন পরই শুরু হবে ‘মিলি’ (Mili)। নতুন এই ধারাবাহিকের প্রোমো দেখেই দর্শকরা রহস্যের গন্ধ পেয়েছে। আর এই নতুন ধারাবাহিক শুরুর আগেই শেষ হয়ে যাবে জি বাংলার এক ধারাবাহিক ‘মুকুট’ (Mukut)। ধারাবাহিকটি টিআরপির অভাবে কিছু মাসেই বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। তবে শেষ পর্বে থাকবে দারুন ট্যুইস্ট। ইতিমধ্যে শুটিং শেষ হয়ে গিয়েছে। বর্তমানে টিআরপিতে স্কোর নিচে নামলেই সেই ধারাবাহিককে সরিয়ে জায়গা করে নেয় নতুন ধারাবাহিক।

এরমধ্যেই এক সিরিয়াল হল জি বাংলার ধারাবাহিক ‘মুকুট’। ধারাবাহিকটি নিয়ে প্রথমদিন থেকে দর্শকদের মধ্যে চর্চা তুঙ্গে। তবে ধারাবাহিকের বিষয়টা সুন্দর হলেও, গল্পটা দর্শকের মনে তেমন জায়গা করে নিতে পারেনি। শুরু হওয়ার পর থেকে এখনোও পর্যন্ত ধারাবাহিকটি টিআরপিতে (TRP) তেমন ভালো স্কোর করতে পারেনি। ২৭ মার্চ থেকে জি বাংলায় শুরু হয়েছে ‘মুকুট’। প্রোডাকশনকে বারংবার চ্যানেল টিআরপি তোলার কথা বলেছে। আর তাই ধারাবাহিকেও এসেছে দারুন দারুন ট্যুইস্ট।

মাত্র ৬ মাসেই শেষ হয়ে যাবে ‘মুকুট’। ব্লুজ প্রোডাকশন (Blues Productions) হাউজের ব্যানারে এসেছিলো এই ধারাবাহিক। গল্পের বিষয়টা ছিল বেশ অন্যরকম। মুকুট আসলে একজন স্পেশাল টাস্ক ফোর্স। যদিও মুকুটের আসল পরিচয় কারোর জানা ছিল না। মুকুট রায়ানকে বিয়ে করেছিল নারী পাচারের আসল দোষীকে ধরার জন্য। উক্ত ধারাবাহিকে নায়িকার চরিত্রে রয়েছেন শ্রাবণী ভুইয়াঁ (Shrabani Bhunia) ও নায়ক ছিলেন অর্ঘ্য মিত্র (Argha Mitra)।

ধারাবাহিকের গল্প লিখেছেন ও পরিচালনা করেছেন স্নেহাশিস চক্রবর্তী (Snehasis Chakraborty)। মুকুটের আসল পরিচয় সকলের সামনে এলে একপ্রকার বাধ্য হয় রায়ান (Rayan) রূপাকে বিয়ে করতে রাজি হয়। আর নিজের বর রায়ানকে বরণ করে নেয় মুকুট। আমরা দেখেছি, শেষ শুটিং’এ রায়ানকে বরণ করার সময় পেছন থেকে কোনও আগন্তুক মুকুট’এর গায়ে গুলি করে, তখনই মুকুট মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। তারপর থেকেই অনেকের মনে অনেক প্রশ্ন জাগে। তবে কি মুকুট মারা যাবে? মুকুটের মৃত্যুতেই ধারাবাহিকটি শেষ হবে?

আরও পড়ুনঃ আবার একসাথে অর্ণব ঈপ্সিতা! আলো ছায়ার পর ফের একসাথে নতুন ধারাবাহিকে বাস্তবের এই জুটি

জানা গেল, ধারাবাহিকে আসলে মুকুটের সাথে শেষমেশ কী ঘটতে চলেছে। মুকুটের গায়ে গুলি লাগলে মুকুটকে সাথে সাথে হাসপাতালে নিয়ে যায় রায়ান। সেখানে চিকিৎসা হয় মুকুটের। তারপর মুকুটের জ্ঞান ফেরে। হাসপাতালে মুকুটের জন্য কেউ তার পরিবার থেকে যায়নি। রায়ান মুকুটের সামনে এলে ওদের মধ্যে কথাবার্তা হয়। তারপর রায়ান ও মুকুটের মধ্যে সব ভুল বোঝাবুঝি দূর হয়ে যায়। দুজনের মধ্যে মিল হয়ে যাবে। অর্থাৎ নায়ক ও নায়িকার মিল করিয়েই শেষ হবে ‘মুকুট’ ধারাবাহিক।

Back to top button