পরাগকে উচিৎ শিক্ষা দিয়ে দীপাকে সবার সামনে নিজের স্ত্রীর সম্মান দিল সূর্য, রইল আজকের পর্ব 

সকলের সামনে দীপাকে নিজের স্ত্রীর সম্মান দিয়ে পরাগের অসভ্যতামির চরম শিক্ষা দিল সূর্য, আজকের পর্বে রয়েছে দারুন টুইস্ট

বর্তমানে স্টার জলসার (Star jalsha) সবচেয়ে জনপ্রিয় ধারাবাহিকটি হচ্ছে অনুরাগের ছোঁয়া (Anurager Chowa)। দীর্ঘদিন ধরে একটানা দর্শকদের মনে আনন্দ দিয়ে আসছে এই ধারাবাহিক। প্রতি সপ্তাহেই টিআরপিতে টপ করে অনুরাগের ছোঁয়া। প্রতিযোগিতায় কেউ পাত্তা পায় না এই ধারাবাহিকের কাছে। বর্তমানে ধারাবাহিকের মূল আকর্ষণ সোনা এবং রুপা।

দীপার আভাস পেল সূর্য

সম্প্রতি গল্প অনুযায়ী অভাব সামলাতে বাড়িতে মালির কাজ নেয় দীপা। সেখানেই তার দ্বারা একটি ভুল হয়ে যায়। সেই ভুলের ক্ষতিপূরণ দিতে রান্নার দায়িত্বটাও নিজের কাঁধে তুলে নেয় সে। এরপর একে একে সেই বাড়িতে নিমন্ত্রিত সবাই আসতে থাকে। তাদের মধ্যে একজন ছিল সূর্য এবং মিশকা। সূর্য ঢুকেই বাগানের সাজানো ফুল গুলো দেখে দীপার কথা মনে পড়ে যায়। অন্যদিকে রান্নার গন্ধ পেয়ে রূপার মনে হয় এ তো তার মায়ের হাতের রান্না। এসব ভেবে মন খারাপ হয়ে যায় তাদের।

সূর্যকে দেখে ভয় পেয়ে গেল দীপা

সূর্যদের অনেক আপ্যায়ন করে বাড়িতে ভিতর নিয়ে আসে সূর্যর স্যার। এরপর জমিয়ে আড্ডা দেয় তারা। কিন্তু সবকিছুর মাঝে কোথাও যেন দীপার কথাই চিন্তা করতে থাকে সূর্য। এরপর দেখ পরে দীপার। সবাইকে খাবারগুলো দিতে বলা হয় তাকে। কিছুটা এসেই দীপা দেখতে পারে সেখানে উপস্থিত রয়েছে তার ডাক্তারবাবু। তখনই দীপা ভয় পেয়ে যায়। সবার সামনে যদি সূর্য তাকে দেখে তাহলে কি হবে সেটাই ভেবে পায় না।

অন্যদিকে মিশকা দেখে ফেলে দীপাকে। সে ভাবতে থাকে “যদি দীপা এখন সূর্যের সামনে চলে আসে তাহলে সূর্য রিঅ্যাক্ট করবে। সবাই জেনে যাবে দীপা সূর্যের স্ত্রী। আর তারপর একটা বাজে সিনক্রেট হবে। তার আগে আমাকে সূর্যকে এখান থেকে নিয়ে চলে যেতে হবে যেভাবেই হোক। সূর্যের সামনে ওকে আসতে দেওয়া যাবেনা।”

দীপাকে স্ত্রীর সম্মান দিলো সূর্য

দীপা তার মালকিন কে বলে সে রান্না করে চলে যাবে। তখন তার মালকিন বলে টাকা নেওয়ার বেলায় সব নেবে আর কাজের বেলায় ফাঁকি। সে চলে গেলে সার্ভ করবে কে। এই বলে সে চলে যায়। দীপা খুব ভয় পেয়ে যায় তখনই রান্নাঘরে ঢুকে পড়ে পরাগ। সে দীপার সঙ্গে আবারো অসভ্যতামি করতে থাকে। তখন দীপা খুব মারে। এই অপমানের জবাব নিতে দীপাকে টানতে টানতে সবার সামনে নিয়ে আসে সে। আর বলে “এই মেয়েটা চুরি করছিল আমি ধরে ফেলতেই আমাকে মারছে।” দীপার এই অবস্থা দেখে মাথা গরম হয়ে যায় সূর্যর আর সঙ্গে সঙ্গে পরাগগে মারতে থাকে সে। সূর্য বলে “মেয়েদেরকে কিভাবে সম্মান করতে হয় সেটা জানা নেই না?” তখন পরাগ বলে যে সূর্যের কেন এত দরদ উঠলে উঠছে ওই মেয়েটার জন্য? সূর্য তখন সবার সামনে বলে দীপা তার স্ত্রী। এবার সবার মনে একটাই প্রশ্ন এত বড় পরিবারের স্ত্রী হয়ে সামান্য কাজের লোকের ভূমিকায় কেন রয়েছে দিপা?

Back to top button