বাচ্চাদের বোম ব্লাস্টের হাত থেকে বাঁচাতে নিজের প্রাণের ঝুঁকি নিল দীপা! স্বাধীনতা দিবসের দিন রয়েছে দুর্ধর্ষ পর্ব

"বাঁচলে একসাথে বাঁচবো মরলে একসাথে মরবো", বোমের সামনে দীপাকে দেখে আবার দুর্বল হলেও সূর্য!

বর্তমানে স্টার জলসা (Star jalsha) সম্প্রচারিত অনুরাগের ছোঁয়া (Anurager Chowa) একেবারে জমে উঠেছে। একদিকে কবিরের আগমন অন্যদিকে স্কুলে বোম ব্লাস্ট সবমিলিয়ে জমজমাট পর্ব চলছে এই ধারাবাহিকে। সবদিক থেকে টানটান উত্তেজনায নিয়ে টেলিভিশনের পর্দায় চোখ রাখছেন দর্শক মহল।

আগের দিনের পর্বে দেখা যায় স্কুলের স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানে গোটা স্কুলকে গাছ দিয়ে সাজানোর সমস্ত দায়িত্ব পড়েছে সোনা রুপার মা দীপার কাঁধে। সেই কাজই করতে থাকে দীপা। অন্যদিকে এর মাঝেই দুইজন অজ্ঞাত ব্যক্তি এসে তাকে বলে প্রিন্সিপাল ম্যাম নাকি তাকে ডাকছে। দীপার অনুপস্থিতির সুযোগ নিয়ে টবের মধ্যে বোম ঢুকিয়ে দেয় সেই দুই দুষ্কৃতী।

স্কুলে বোম ব্লাস্টের পরিকল্পনা করল দুষ্কৃতী

সৌভাগ্যবশত স্কুলে বোম ব্লাস্টের আগাম সচেতনতা নিয়ে চলে আসে পুলিশ। জানানো হয় প্রিন্সিপাল ম্যামকে আর তারপর জানতে পারে দীপা। সবাইকে সতর্ক করতে গেলে, ভিড়ের মধ্যে লুকিয়ে থাকা দুই দুষ্কৃতী বাইরে বেরিয়ে আসে এবং সবার দিকে বন্ধুর তাক করে। সবার সামনে দাঁড়িয়ে ছিল দীপা। সে একটুও ভয় না পেয়ে টবের মধ্যে থেকে সেই বোমটা বার করে নিজের হাতে নেয়।

সাহসিকতার পরিচয় দিলে দীপা

ততক্ষণে পিছন থেকে এসে ওই দুই গুণটাকে ধরাসাই করেছে সূর্য। কিন্তু তাতে কি? বোম তো আর কয়েক সেকেন্ডের মধ্যেই ফাটবে। কি করবে ভেবে না পেয়ে দীপা নিজে বোম নিয়ে বাইরে বেরিয়ে যায় আর সবাইকে সেখান থেকে পালিয়ে যেতে বলে। এরপর সেখান থেকে বেরিয়ে মুখোমুখি হয় সূর্যের। দীপা সূর্যকে বলে তার যদি কিছু হয়ে যায় তাহলে সূর্য যেন সোনা রুপাকে দেখে রাখে।

দীপার পাশে সব সময় দাঁড়িয়ে সূর্য

কিন্তু সূর্য দীপাকে একা ছাড়েনি। সে বলে যদি বাঁচতে হয় একসঙ্গে বাঁচবো যদি মরতে হয় তাহলে একসঙ্গে মরবো। এই বলে দুজন মিলে বাইরে বেরিয়ে যায়। ছুটতে ছুটতে সামনেই একটা পুকুর পড়ে। দীপা খুব বুদ্ধি করে বোমটা সেই পুকুরে ছুঁড়ে ফেলে। জলে পড়া মাত্রই টাইমার অফ হয়ে ব্লাস্ট করে সজোরে। আজ দীপা আর সূর্যের সাহসিকতা এবং বুদ্ধিমতার জন্য বেঁচে যায় গোটা এলাকা।

Back to top button