আর কখনো সূর্যকে উপহার দেবে না রূপা, এতো অনুরোধ করেও তার থেকে সোনাকে আলাদা করে দিল, এদিনের পর্ব দেখে চোখে জল দর্শকের

বর্তমান সময় স্টার জলসার অন্যতম জনপ্রিয় ধারাবাহিক হচ্ছে অনুরাগের ছোঁয়া। প্রায় প্রতি সপ্তাহেই টিআরপি তপার হয় এই মেগা। ধারাবাহিকে নায়ক নায়িকার দুই সন্তান সোনা আর রুপার অভিনয়ে মুগ্ধ ভক্তরা। এই এত টুকু বয়সে রাগ কষ্ট দুঃখ অভিমান সব রকমের অভিব্যক্তি এত সুন্দর করে ফুটে উঠছে তাদের মুখে যা না দেখলে বিশ্বাস করা যায় না।

বর্তমানে ধারাবাহিকের নায়ক নায়িকার মধ্যে চলছে ভুল বোঝাবুঝির পর্ব। যার ফল স্বরূপ ক্ষত বিক্ষত হচ্ছে দুই শিশু। সূর্যের অহেতুক জেদ, সত্যি তাই চোখের সামনে থেকেও দেখতে না পাওয়া, প্রতিদিন দীপাকে অপমান করা এই সমস্ত কিছু দেখতে দেখতে সূর্যের উপর বিরক্তি চলে এসেছে দর্শকদের।

এখন সূর্য আরও একটা অবিবেচকের মত কাজ করতে চলেছে। তার মতে দীপার সান্নিধ্য সোনাকে বিগড়ে দিচ্ছে। সোনা দীপার জন্য আর আগের মত তার কথা শোনে না। তাই সোনাকে অন্য স্কুলে ভর্তি করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সূর্য। সেই পরিকল্পনা মাফিক স্কুল থেকে ট্রান্সফার সার্টিফিকেটও নিয়ে নিয়েছে সে। প্রথমে সোনা খুব খুশি হয়েছিল অন্য স্কুলে ভর্তি হওয়ার কথা শুনে। কিন্তু তারপরে সূর্যের কথা শুনে তাদের সমস্ত খুশি হাওয়ায় মিলিয়ে গেল।

রুপা, প্রথমবার নিজের বাবাকে ফাদার্স ডে উইশ করবে বলে নিজের হাতে একটা ফুল তৈরি করে এনে সূর্যকে দেয়। কিন্তু সে তার ডাক্তারবাবুকে বলতে পারে না এই ফুলটা দেওয়ার কারণ। এরপরে সোনা রুপা দুজনেই জানতে পারে সূর্য শুধুমাত্র সোনাকে অন্য স্কুলে ভর্তি করে দেওয়ার কথা বলছে। এটা শোনা মাত্রই সূর্যের হাত থেকে ফুলটা নিয়ে ছুঁড়ে ফেলে দেয় রুপা। আর বলে ওঠে রূপা তোমায় আর কখনো কিছু দেবে না। সোনা রাগে কষ্টে কাঁদতে কাঁদতে দীপাকে জড়িয়ে ধরে। রুপা সূর্যকে বলে রুপা তো সব হারিয়েছে।

নিজের বাবাকেও কখনো পায়নি। সব জানার পরেও হিংসে কুটিকে তার থেকে আলাদা কেন করে দিচ্ছে সূর্য? তখন সূর্য রুপাকে বলে সে অনেক ছোট তাই রুপা সবকিছু বুঝতে পারছে না। তখন রুপা কাঁদতে কাঁদতে বলে রুপা এই বয়সে অনেক কিছু দেখেছে। আমি কিছু জেনেছে তাই রুপা অনেক বড় হয়ে গেছে। রুপা ছোটদের মতো কথা বলতে পারেনা। সে সূর্যের সামনে হাত জোর করে বলে সে যেনো সোনাকে তার থেকে আলাদা না করে। এদিন রুপার মধ্যে থাকা চাপা কষ্ট আর সোনাকে হারিয়ে ফেলার ভয় রুপার মধ্যে যে অসাধারণ অভিব্যক্তির সৃষ্টি করে, যা দেখার পর দর্শকদের চোখে জল আসতে বাধ্য।

Back to top button