জগদ্ধাত্রীর কাছে ক্ষমা চেয়ে স্বয়ম্ভুকে ছেলে হিসেবে স্বীকার করে নিল বৈদেহি, নিজের ছেলের অন্যয়গুলো কি এবার স্বীকার করবে সে?

যারা নিয়মিত বাংলা ধারাবাহিক দেখেন তারা জানবেন এই মুহূর্তে বাংলা ধারাবাহিকের একটি প্রথম সারির চ্যানেল জি বাংলার (Zee Bangla) সবথেকে জনপ্রিয় ধারাবাহিকটি হল জগদ্ধাত্রী (Jagaddhatri)। এই সপ্তাহের টিআরপি তালিকা অনুযায়ী চ্যানেল টপার এই ধারাবাহিক। শুরু থেকেই নিজের স্থান ধরে রেখেছে এই ধারাবাহিক। মাঝে দ্বিতীয় থেকে তৃতীয় স্থানে এলেও বর্তমানে দ্বিতীয় স্থানে রাজ করছে জগদ্ধাত্রী। ধারাবাহিকটি পুরোটাই থ্রিলার সাসপেন্স এবং অ্যাকশনে পরিপূর্ণ। এই সমস্ত গুণগুলি ধারাবাহিকটিকে ৮ থেকে ৮০ সবার কাছে জনপ্রিয় করে তুলেছে।

এতদিন ধরে এই ধারাবাহিকে চলছিল স্বয়ম্ভু মৃত্যু রহস্যের সমাধান। এখন সেই সমস্ত জট খুলে সব সত্যিটা চলে এসেছে জগদ্ধাত্রীর সামনে। ধরা পড়েছে আসল কালপ্রিট। আর বাদবাকি যেটুকু কাজ বাকি সেটুকুর জন্য এখন জগদ্ধাত্রির পাশে রয়েছে স্বয়ম্ভু। দীর্ঘ কয়েক দিন পর ফের একসাথে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে লড়াইয়ে নেমেছে তারা। এ দিনের পর্বে দেখা যায় টিটুর সঙ্গে দেখা করতে গেছে জগদ্ধাত্রী। আর সেখানে গিয়ে টিটুকে জগদ্ধাত্রী বলে, সে যেগুলো করছে সেগুলো যেন খুব তাড়াতাড়ি বন্ধ করে।

এক কথায় টিটু কে উচিত শিক্ষা দিতে যায় জগদ্ধাত্রী। কিন্তু সেই সময় সেখানে চলে আসে তুষার তলা পাত্র। এবং সে এসে জগদ্ধাত্রীকে বলে টিটু যা করেছে বেশ করেছে। তখন জগদ্ধাত্রী একজন বাবার মুখে এমন কথা শুনে অবাক হয়ে যায়। তুষার বলে কৌশিকী মুখার্জী যদি আমার নামে আর একটা খারাপ কথা তার পেপারে বার করেছে তাহলে টিটু তিন্নির সমস্ত ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল করে দেবে।

তুষার চলে যাওয়ার পর জগদ্ধাত্রী টিটুকে বলে “তোমায় আমি পরে দেখে নেব তোমার এমন অবস্থা করবো যে তুমি ভাবতেও পারছো না।” তখনই ফোন আসে মেহেন্দির, মেহেন্দি বলে সে তাদের জন্য খাবার বানিয়েছে কখন আসবে তারা? জগদ্ধাত্রী মেহেন্দির মুখে এমন কথা শুনে অবাক হয়ে যায়। অন্যদিকে বৈদেহি ভার্গভী সবাই জগদ্ধাত্রী আর স্বয়ম্ভুর আসার অপেক্ষা করছে। জগদ্ধাত্রী জন্য নতুন শাড়িও কিনে এনেছে তারা।

জগদ্ধাত্রী আর স্বয়ম্ভু বাড়িতে ঢুকতেই দেখলে সবাই তাদের জন্য অপেক্ষা করে দাঁড়িয়ে রয়েছে। স্বয়ম্ভ বলে, “আপনারা আমার জন্য দাঁড়িয়ে ছিলেন?” তখন রাজনাথ বলে ওঠে আপনি বোলো না তুমি আমার ছেলে। বৈদেহি এবং রাজনাথ দুজনেই তাদেরকে ফিরে পেয়ে ভীষণ খুশি। তাদের দুজনকে কাছে টেনে নেয় তারা। বৈদিহি জগদ্ধাত্রীকে নিজের বৌমা হিসেবে স্বীকার করে নেয়। গোটা বিষয়টাতে ভীষণ খুশি হয় জগদ্ধাত্রী।

Back to top button