হাসপাতালেই ফুলকিকে চিরতরে সরিয়ে দিতে শালিনীর পর এবার রুদ্রর মোক্ষম চাল!

ভালোবাসা ভুলে নিজেকে বাঁচাতে এবার ফুলকিকে মারার মোক্ষম প্ল্যান বানিয়ে ফেলল রুদ্র

এই মুহূর্তে জি বাংলার (Zee Bangla) পর্দায় সম্প্রচারিত একটি জনপ্রিয় ধারাবাহিক হল (Bengali Serial) ‘ফুলকি’ (Phulki)। এই ধারাবাহিকের নায়কের ভূমিকায় দেখা যাচ্ছে জনপ্রিয় অভিনেতা অভিষেক বসু এবং নায়িকার চরিত্রে দেখা যাচ্ছে নবাগত অভিনেত্রী দিব্যানী মন্ডলকে। এই মুহূর্তে বেশ জমে উঠেছে ধারাবাহিকের বর্তমান প্লট।

যারা এই ধারাবাহিকের নিয়মিত দর্শক তারা জানবেন, রোহিতের প্রাক্তান স্ত্রী হল শালীনি। সম্প্রতি সে রুদ্রর সাথে হাত মিলিয়ে রোহিত আর ফুলকিকে আলাদা করতে ফের ফিরে এসেছে রোহিতের জীবনে।

শালীনি কোনো ভাবেই ফুলকিকে সহ্য করতে পারে না। তাই সে ইচ্ছে করে ফুলকিকে বিপদে ফেলে, যার ফল স্বরূপ ফুলকি গুরুতর চোট পায়। ফুলকির অবস্থা এতটাই খারাপ হয় যে, তার জীবন নিয়ে টানাটানি পড়ে যায়। ডাক্তার কিছুই নিশ্চিতভাবে বলতে পারেনা।

রোহিত সহ বাড়ির প্রত্যেকে ভেঙে পড়ে। রুদ্র শালিনীর ওপর ভীষণ রেগে যায়। কিন্তু পরে তারা উপলব্ধি করে যে এখন একে অপরের প্রতি চিৎকার চেঁচামেচি করে লাভ নেই কারণ ফাঁসলে তারা দুজনেই ফাঁসবে। তাই মুখ খোলার আগেই ফুলকিকে চিরকালের মত ঘুম পাড়িয়ে দেওয়ার প্ল্যান করতে থাকে তারা।

ফুলকির এমন অবস্থা দেখে একেবারে পাগল পাগল অবস্থা হয় রোহিতের। সে ফুলকির সামনে গিয়ে দাঁড়ায় আর ফুলকিকে বলে, “তুমি এভাবে শুয়ে থাকতে পারো না, তোমাকে উঠতেই হবে। এভাবে চুপ করে থাকার অধিকার কেউ দেয়নি তোমায়।”

ধারাবাহিকের আগামী পর্বে দেখা যাবে, রোহিত ফুলকির পাশে বসে তাকে বলছে, “তুমি তো আমার জন্য চাঁদ অব্দি এনে দিতে পারো আর একবার চোখ খুলে তাকাতে পারছ না?” অন্যদিকে রুদ্র শালীনিকে বলছে, এবার হাসপাতালে একটা বড় পাওয়ার কাট হবে, তাতে সাপও মরবে আর লাঠিও ভাঙবে না।

Back to top button