রুদ্রর চক্রান্তে বিয়ের আসর থেকে কিডন্যাপ হল ফুলকি, রোহিত কি বাঁচাতে পারবে ফুলকিকে নাকি তাদের বিয়েটা ভেঙে যাবে?

এক মাস হল জি বাংলায় (Zee Bangla) শুরু huuহয়েছে ফুলকি (Phulki)। মিঠাই ধারাবাহিক শেষ হওয়ার পর সেই ধারাবাহিকের জায়গাতেই সম্প্রচারিত হচ্ছে এই ধারাবাহিক। শুরু হওয়ার পর থেকেই সবাইকে চমকে গিয়ে টিআরপিতে একেবারে চ্যানেল টপার হয় এই ধারাবাহিক। মাত্র এক মাসের মধ্যেই দর্শকদের মন জয় করে নিয়েছে ধারাবাহিকের নায়ক নায়িকা।

বর্তমানে ধারাবাহিক যে প্লট নিয়ে এগিয়ে চলেছে?

এই মুহূর্তে ধারাবাহিকের প্লট অনুযায়ী বিয়ে হচ্ছে ফুলকি আর রহিতের। ফুলকিকে কনের সাজিয়ে রোহিতের বৌদিকে ভিডিও কল করে লাবু। সেখানে ফুলকিকে দেখে মুগ্ধ হয়ে যায় সবাই। তারপর রোহিতের বৌদি জোর করে রোহিতকে টেনে এনে ফুলকিকে সামনে রেখে বলে, কেমন লাগছে ফুলকিকে বল? রোহিত চুপ করে থাকে, তখন ফুলকি বলে অপদার্থের মত লাগছে বলুন? ফুলকির মুখে এই কথা শুনে হেসে ওঠে সবাই।

কিন্তু সেই ভিডিও কলে রোহিতের পিসি এক বেফাঁস মন্তব্য করে বসে। সে বলে ফুলকি আবার কিছু খেয়ে নেয়নি তো? আগেরবার কিন্তু শালিনী আর রোহিত অনেক কিছু খেয়ে নিয়েছিল তাই তো বিয়েটা টেকেনি। এসব শুনে ভয় পেয়ে যায় ফুলকির বাড়ির লোকজন। কিন্তু ফুলকি এই সমস্ত বিষয়টা সামলে নেয়।

অন্যদিকে রুদ্র কিছুতেই শান্ত থাকতে পারে না। তার চোখের সামনে এই সমস্ত হতে দেখে রাগে পাগল হয়ে যায় সে। সে তার একজন চ্যালাকে ডেকে বলে বিয়ের বাড়ি থেকে ফুলকিকে তুলে এনে পাচার করে দিতে হবে। তার কথা অনুযায়ী দুজন গুন্ডা ফুলকির বাড়িতে পৌঁছেও যায়। ফুলকিকে একা পেয়ে মুখে রুমাল চাপা দিয়ে তাকে অজ্ঞান করে বস্তায় ভরে গাড়িতে তুলে নেয় সেই গুনগুলো।

এবার বিয়ে করতে চলে এসেছে রোহিত তাকে বরণ করে ঘরে আনে ফুলকির মা। যথারীতি বিয়ে শুরু হয়ে যায়। আর তারপর ডাক আসে কোনের অর্থাৎ ফুলকির। ফুলকিকে ডাকতে গিয়ে ফুলকির বাবা-মা দেখে ঘরে কেউ নেই আশেপাশে খোঁজা হলেও তার দেখা মেলে না। সঙ্গে সঙ্গে গোটা বিয়ের বাড়ি জেনে যায় ফুলকি নিখোঁজ। এবার কি তাহলে রোহিত আর ফুলকির বিয়েটা হবে না? নাকি রোহিত ঠিক বাঁচিয়ে নেবে ফুলকিকে? এখন সেটাই দেখার বিষয়।

Back to top button