রাঙা বউতে দেখানো হল সোশ্যাল মিডিয়ার গুণ, রাস্তার ধারে ছোটো ঘুগনির দোকানে পাখি কুশের জীবন সংগ্রাম এলো সকলের সামনে

জি-বাংলার (Zee bangla) জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘রাঙা বউ’ (Ranga Bou)। এই ধারাবাহিকের হাত ধরে দীর্ঘদিন বাদে পর্দায় ফিরেছেন অভিনেত্রী শ্রুতি দাস (Shruti Das)। শুরু হওয়ার পর থেকেই ধারাবাহিকটি সারা ফেলে দিয়েছে দর্শক মহলে। প্রতিদিন নিয়ম করে এই ধারাবাহিক দেখতে ভোলেন না দর্শকরা। টিআরপি তালিকাতেও এক থেকে পাঁচের মধ্যে রয়েছে এই ধারাবাহিক।

মূল আকর্ষণ হল ‘ত্রিনয়নী’র সেই পুরনো জুটি

এর একটি সুন্দর প্লট থাকলেও, ‘রাঙা বউ’ ধারাবাহিকের মূল আকর্ষণ হল ‘ত্রিনয়নী’র সেই পুরনো জুটি। এই ছুটি মন ছুঁয়ে গিয়েছিল দর্শকদের। সেই ম্যাজিক আবার কাজ করেছে টিভির পর্দায় তা প্রমানিত। যারা ধারাবাহিকটি দেখেন তারা জানেন, বিয়ের পর থেকে শ্বশুর বাড়িতে আসার পর বাড়ির বেশ কিছু সদস্য পাখির পিছনে ষড়যন্ত্র করে চলেছে। যদিও নিজের বুদ্ধি খাটিয়ে পাখি সব বিপদ মোকাবিলা করে।

সংসার বাঁচাতে চা ঘুগনির দোকান চালাচ্ছে গল্পের নায়ক নায়িকা, অর্থাৎ পাখি আর কুশ। বড় বাড়ি, সম্ভ্রান্ত পরিবার ছেড়ে এখন তারা রাস্তার ধারের ছোট্ট চা জলখাবারের দোকান করে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছে সংসারকে। আমাদের চারপাশে ঠিক এমন কত দোকান রয়েছে যাদের পিছনেও রয়েছে হয়তো এমনই কোন গল্প। কিন্তু সেই কাহিনী মানুষ অব্দি পৌঁছয় না। কিন্তু আজকের যুগে সবই সম্ভব।

সমাজমাধ্যমের একটি ভালো দিক

এই সোশ্যাল মিডিয়ার যুগে অনেক খারাপ ঘটনার সাথে সাথে অনেক ভালো জিনিসও ঘটছে। যেমন, অনেক ছোটখাটো খাবারের দোকান হামেশাই এদিক-ওদিক গজিয়ে উঠছে, যেগুলি রান্না হয় তো বড় বড় পাঁচতারা হোটেলের রান্নাকেও হার মানাতে পারে। কিন্তু প্রচারের অভাবে বিক্রি বাট্টা তেমন নেই। সোশ্যাল মিডিয়ায় এমন অনেক ফুড ব্লগার রয়েছে যারা এই সমস্ত দোকানগুলিকে খুঁজে বের করে সেগুলোর রিভিউ দিয়ে দোকানগুলিকে জনসমক্ষে আনছে।

বিনোদনের সাথে শিক্ষা

এই জিনিসটাই এবার ফুটিয়ে তোলা হচ্ছে রাঙা বউতে। একটু খেয়াল করলে দেখা যাবে জি বাংলার প্রায় প্রত্যেকটি ধারাবাহিকে কিছু না কিছু বাস্তব ঘটনা তুলে ধরা হচ্ছে। যার দরুন সমাজের কাছে একটি সুন্দর বার্তা পৌঁছে যাচ্ছে। অর্থাৎ কেবল বিনোদন নয় তার পাশাপাশি অনেক কিছুর শিক্ষাও পাচ্ছেন দর্শকরা। রাঙা বউ ধারাবাহিকের এই প্লট প্রথমত দর্শকদের কাছে এই বার্তা পৌঁছে দিচ্ছে যে কোন কাজই ছোট নয়। আর তার সাথে সোশ্যাল মিডিয়ার একটি ভালো দিক ও তুলে ধরছে ভক্তদের সামনে।

Back to top button