ফোনে বটু সৃজনের কথা শুনে ফেললো পর্ণা! বিপাশার পর্দা ফাঁস করার আগেই ফুল মাসির আসল চেহারা আনবে পর্ণা?

পর্ণার সামনে নেমে এলো চরম বিপদ, ধারাবাহিকের আগামী পর্ব ফাঁস, ধরা পড়ে গেল পর্ণা!

বর্তমানে জি বাংলা (Zee Bangla) চ্যানেলের একটি অন্যতম জনপ্রিয় ধারাবাহিক হচ্ছে নিম ফুলের মধু (Neem Phuler Modhu)। সম্পূর্ণ সাদা সিদে একটি পারিবারিক গল্প নিয়ে তৈরি হয়েছে এই ধারাবাহিকের প্লট। এর মধ্যে দিয়েই দর্শকদের মন জিতে নিচ্ছে এই ধারাবাহিক। প্রতি সপ্তাহেই এক থেকে পাঁচের মধ্যে টিআরপি তালিকায় স্থান পায় নিম ফুলের মধু। ধারাবাহিকের প্রধান আকর্ষণ নায়িকা পর্ণা।

বিপাশা সেজে শাড়ির ব্যবসায় পর্ণা

সৃজন যাতে অনেক দূরে না চলে যায় তাই পর্ণা নিজে অনেক পরিকল্পনা করে শাড়ির ব্যবসায়ী বিপাশা সেজে সৃজনকে কলকাতাতেই চাকরি দেয়। ধীরে ধীরে এই শাড়ির ব্যবসার গল্পটাকে সত্যিতে রূপান্তরিত করছে সে। আর তার এই কাজকর্মের মাঝে মূর্তিমান সর্বনাশ হিসেবে নেমে এসেছে বটব্যাল আর তিন্নি। পর্ণাকে বিপদের মুখে ফেলতে প্রতিনিয়ত নানারকম ভাবে চেষ্টা করে চলেছে সে।

বিপাশাই পর্ণা জেনে গেল সৃজন

আগামী পর্ব দেখলে বেশ ভয় পেয়ে যাবেন দর্শকম মহল। ধারাবাহিকের আগামী পর্বে দেখানো হবে সৃজন ফোনে কথা বলছে শাড়ি ডিলারের সাথে। সেই ডিলার নিউ জার্নির সিইও (CEO)-র সাথে কথা বলতে চায়। অর্থাৎ যখন ডিল ফাইনাল করা হবে তখন যেন বিপাশা সেখানে উপস্থিত থাকেন এমনটাই দাবি করেন শাড়ি ডিলার।

এই ডিলার কিন্তু যে সে লোক নন ইনি হচ্ছেন বটব্যাল। এইবার পর্ণাকে বিপদে ফেলতে মোক্ষম চাল দিয়েছেন তিনি। সৃজন বলে যদি ম্যাডামের হয়ে সে সই করে দেয় তাহলে কি কোন ভাবে ডিলটা করা সম্ভব নয়? ফোনের ওপার থেকে বটব্যাল সৃজনকে বলে “যদি এমনটা হয় সেক্ষেত্রে সরি আমাদের ডিলটা ক্যানসেল করতে হবে।”

“ওনার অনুপস্থিতিতে আমরা ডিলকরব না।” এই শুনে ভীষণ চিন্তায় পড়ে যায় সৃজন। পাস থেকে দাঁড়িয়ে সবই শুনছিল পর্ণা। সেও ভয় পেয়ে যায় সৃজনের কথা শুনে। তবে কি আর শেষ রক্ষা হবে না, এবার বিপাশার ভেগ ধরে বাড়িতে ঢুকতেই কি তবে সবার কাছে ধরা পড়ে যাবে পর্ণা? বিস্তারিত জানতে দেখতে হবে নিম ফুলের মধু।

Back to top button