সিরিয়াল হচ্ছে নাকি যেমন খুশি সাজো প্রতিযোগিতা! দুদিন ছাড়া ইন্দ্র মিতুলদের ছদ্মবেশ দেখে চরম কটাক্ষ শুরু দর্শকমহলে

বর্তমানে জি বাংলার একটি জনপ্রিয় ধারাবাহিক হল ‘খেলনা বাড়ি’। সম্প্রতি ধারাবাহিক নিয়েছে বড় লিপ। বড় হয়ে গিয়েছে গুগলি। পাশাপাশি আমরা এও জেনেছি, মিতুল ও ইন্দ্রের ছেলে ‘আদর’ নিখোঁজ। তবে এতদিনে জানা গিয়েছে, পাড়ার দুষ্টু ছেলে শিবাই তাদের ‘আদর’। আর সেই আদরকে নিখোঁজ করেছিল নকল অন্তরা। আদরকে দূরে রেখে মিতুল আর তার পরিবারের শত্রু হিসাবে বড় করতে চেয়েছিল আদরকে।

ধারাবাহিকের গল্প অনুযায়ী আসল অন্তরাকে মেরে এসেছে তার বোন। আর সেই নিতে চায় অন্তরার নামে থাকা সকল সম্পত্তি। এখন সেই সম্পত্তি মিতুলের। আর তাই আদর আর গুগলি দুজনকেই মিতুল আর ইন্দ্রের বিরুদ্ধে করে নকল অন্তরা। এমনকি আদরের হাতে মিতুল সহ গোটা পরিবারকে শেষ করানোরও উদ্দেশ্য ছিল অন্তরা আর রণের। নানাভাবে তাদের সমস্যায় অসফল হয়।
Bengali serial
ইন্দ্রকে বাঁচাতে গিয়ে একের পর এক রূপ ধারণ করছে মিতুল। এতবার ছদ্মবেশ ধারণ করতে বোধ হয় কোন ধারাবাহিকের নায়িকাকেই দেখা যায়নি। কখনও টপ জিন্স সানগ্লাস পড়ে মডার্ন সাজছে, আবার কখনও রাজস্থানের ড্রেস পড়ে নাচছে। বর্তমানে প্রতিটি ধারাবাহিক টিকে রয়েছে টিআরপির উপর। যে ধারাবাহিকের টিআরপি যত বেশি, সেই ধারাবাহিকের স্থায়ীকাল তত বেশি।

আর তাই এই টিআরপি বাড়ানোর চেষ্টায় বর্তমানে সমস্ত ধারাবাহিক একপ্রকার যেন যুদ্ধে নেমেছে। আর সেই যুদ্ধে জেতার জন্য একের পর এক টুইস্ট আনছে ধারাবাহিকগুলো। পাশাপাশি ধারাবাহিকেও আসছে নানান নতুন মুখ। কিন্তু এইবার মিতুলের ছদ্মবেশ নিয়ে ট্রোলের মুখে পড়ল খেলনা বাড়ি। সপ্তাহে প্রতি দু দিন অন্তর অন্তর নতুন নতুন ছদ্মবেশ ধরছে তারা।

এইবার রণ এর হাত থেকে সমস্ত প্রপার্টি রক্ষা করতে মিতুল আর ইন্দ্র নিল বাবরজির ছদ্মবেশ। এদিনের পর্বে দেখা গেল ইন্দ্রকে সাজানো হয়েছে মেইন শেফ আর মিতুল সেজেছে তার অ্যাসিস্ট্যান্ট। কিছুদিন আগেই জেলের আসামি তার আগে মডার্ন মেয়ে তার মাঝে আবার রাজস্থানী মেয়ে এখন শেফ, এটা ধারাবাহিক না যাত্রাপালা! সেটাই বুঝে পাচ্ছেন না দর্শকরা। আর এই নিয়ে বর্তমানে হাসি-ঠাট্টার শিকার হচ্ছে ধারাবাহিক।

Back to top button