মিথ্যে বলায় গাঙ্গুলী বাড়ি থেকে ময়ূরীকে বার করে দিল নীল!

এই মুহূর্তে দাঁড়িয়ে জি বাংলা (Zee Bangla) চ্যানেলের অন্যতম একটি চর্চিত এবং জনপ্রিয় ধারাবাহিক হচ্ছে ইচ্ছে পুতুল (Ichhe Putul)। শুরুতে সমালোচনার শিকার হয় এই ধারাবাহিক কিন্তু পরবর্তীতে ধীরে ধীরে দর্শকদের কাছে নিজেকে প্রমাণ করেছে এই ধারাবাহিক। শক্তিশালী প্রতিপক্ষ থাকায় ধারাবাহিকটি টিআরপিতে তেমন ভালো ফল করতে না পারলেও সর্বদা দর্শক মহলে চর্চায় থাকে এই ধারাবাহিকের নাম।

এদিনের পর্বে দেখা যায় মেঘ যে প্রতিযোগিতায় নাম দিয়েছিল সেখানে প্রত্যেকের গান এত ভালো হয় যে বিচারকরা রীতিমত দ্বন্দ্বে পড়ে যান যে কাকে বিজয়ীর তকমা দেওয়া যেতে পারে। এরপর টাই হয় জিষ্ণু আর মেঘের মধ্যে। আর সেখানে জিতে যায় মেঘ। মেঘ জিতে যাওয়ার পর হইচই পড়ে যায় গাঙ্গুলী বাড়িতে। নীলের বাবা থেকে শুরু করে ঠাম্মি, প্রত্যেকে মেঘের জিতে যাওয়ায় ভীষণ খুশি।

নীল কিছুক্ষণের জন্য বাড়ি থেকে বেরিয়ে গিয়ে নিজের ফোনে সবটা দেখে আর তারপর বাড়ি ফিরে এসে বাড়ির লোকেদের ওপর চোটপাট করে। আবারো সে মেঘকে সন্দেহ করে এবং তার উপর নোংরা দোষারোপ করে। কিন্তু এই সবকিছুর জবাব কড়ায় গন্ডায় দেয় নীলের ঠাম্মি।

এরপর বাড়িতে আসে ময়ূরী। তাকে দেখে রেগে যায় নীল। বাড়ির সবাই ময়ূরীর দিকে আঙুল তোলে। সবাই তাকে জিজ্ঞাসা করে সে গিনির সঙ্গে কেন এমনটা করল। ময়ূরী কিছু বলতে গেলে নীল তার একটা কথাও শুনতে চায় না। একেবারে ঘাড় ধাক্কা দিয়ে বাড়ি থেকে বের করে দিতে যায়। তখন কিন্তু তাকে আটকায় তার মা মীনাক্ষী।

এরপর ময়ূরী শুরু করে নিজের নোংরা খেলা। সে বাড়ির সবাইকে বলে সে বাঁচার জন্য এমনটা করেছে। সে যদি সেদিনকে মেঘের কথা অনুযায়ী সেই বানানো কথাগুলো না বলতো তাহলে মেঘ তাকে রক্ত দিত না। তাই জন্যেই সে এমনটা করেছে। প্রথমদিকে নীল এসব বিশ্বাস করতে না চাইলেও পরে যেন পাখি পড়ার মতো সমস্তটা বিশ্বাস করে ফেলে। তারপর সে ময়ূরীকে বলে যদি এই সমস্ত কিছু সত্যি হয় তাহলে তাকে বিয়ে করবে নীল।

Back to top button