জেলের বাইরে আসতেই দেবুকে শায়েস্তা করল জগদ্ধাত্রী, আবার দুই চরম শত্রু তার সামনে!

জেল থেকে বেরোতেই দেবুকে উচিত শিক্ষা দিল জগদ্ধাত্রী, অন্যদিকে ফিরে এলো জগদ্ধাত্রীর দুই চরম শত্রু

এই মুহুর্তে জি বাংলা (Zee Bangla) চ্যানেলে সবচেয়ে জনপ্রিয় ধারাবাহিকটি হলো জগদ্ধাত্রী (Jagaddhatri)। স্টার জলসার অনুরাগের ছোঁয়া ধারাবাহিকের সাথে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই চলতেই থাকে জগদ্ধাত্রীর। এইবার দ্বিতীয় থেকে প্রথম স্থানে উঠে এসেছে এই ধারাবাহিকের নাম। ধারাবাহিকটির আকর্ষণীয় প্লট এবং নায়ক নায়িকার অভিনয় বরাবরই মুগ্ধ করে আসছে দর্শকদের। আসছে।

এই দিনের পর্বে দেখা যায়, কৌশিকী জগদ্ধাত্রীকে বলে সে যেন একবার তার সাথে অফিসে যায়। তার সাথে কিছু কথা আছে কৌশিকীর। এই কথা শুনে মেহেন্দি ঈর্ষান্বিত হয়ে পড়ে আর বলে জগদ্ধাত্রীকে নিয়ে যেন বাড়াবাড়ি না করে কৌশিকী। তখন কৌশিকী মেহেন্দিকে স্পষ্ট জানিয়ে দেয় সে যেন এই সমস্ত বিষয়ে মাথা না ঘামায়।

ইতিমধ্যেই সেখানে হাজির হয়েছে দেবু আর অসভ্যের মতন খাবার খেতে শুরু করেছে। সেই দেখে কৌশিকী রেগে যায়। দেবু বলে সে অনেকদিন জেলে ভালো খাবার পায়নি। এরপর জগদ্ধাত্রীর দিকে অদ্ভুত দৃষ্টিতে তাকায় দেবু। সে জগদ্ধাত্রীকে বলে তার জীবনের সমস্ত খুশি কেড়ে নিতে চলেছে সে। এই শুনে জগদ্ধাত্রী বলে “যদি বাড়ির কেউ কিছু জানতে পেরেছে তাহলে তোমার কি অবস্থা হবে সেটা তুমি কল্পনাও করতে পারছ না।”

এরপর নিজের ঘরে গিয়ে স্বয়ম্ভুর সাথে কথা বলতে থাকে জগদ্ধাত্রী। সে স্বয়ম্ভুকে বলে মনে হচ্ছে এই মুখার্জি পরিবারে বড় কোন সর্বনাশ আসতে চলেছে। এরপর এই জগদ্ধাত্রীর ফোনে একটি ফোন আসে। এই ফোনটা করে বেদ। সে জগদ্ধাত্রীকে বলে, জেল থেকে বেরোনোর পর তার জীবনে একটাই লক্ষ্য আর সেটা হল জগদ্ধাত্রীর ক্ষতি করা।

এর আগে দর্শকরা দেখেছেন তিন্নিকে ঠিক কিভাবে ফাঁদে ফেলেছিল টিটু। তিন্নির বেঁচে থাকাটাই দুর্বিষহ হয়ে উঠেছিল। এবার আরও একবার টিটু ফোন করল তাকে। আর জানিয়ে দিল খুব তাড়াতাড়ি জেলের বাইরে আসতে চলেছে সে। এই শুনে ভীষণ ভয় পেয়ে যায় তিন্নি। একদিকে দেবু আরেকদিকে বেদ এবং অন্যদিকে টিটু, এই তিন দিক কিভাবে সামলাবে জগদ্ধাত্রী?

Back to top button