২৭ বছরের লিপ নিয়ে শেষ হতে চলেছে মেয়েবেলা! নতুন অধ্যায় মৃত্যু হবে গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রের আসবে নতুন নায়ক

শেষ হবে কি হবে না, এই নিয়ে গত কয়েকদিন ধরে জোর জল্পনা চলছে ‘মেয়েবেলা’ ফ্যানেদের মধ্যে। বাংলা টেলিভিশনে চলছে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই। পুরনো মেগার গল্পে আসছে নতুন নতুন ট্যুইস্ট,পাল্টাচ্ছে সম্প্রচারের সময়ও। শুরু হচ্ছে একাধিক নতুন ধারাবাহিক। শেষ হচ্ছে বেশ কয়েকটি মেগা। বহুক্ষেত্রে মাত্র কয়েক মাসের মধ্যেই বন্ধ হচ্ছে সিরিয়াল। সেরকমই শোনা যাচ্ছিল, শেষ হবে স্টার জলসার ‘মেয়েবেলা’ (Meyebela)।

মাত্র ছ’মাসেই শেষ হবে ‘মেয়েবেলা’-র জার্নি। গত জানুয়ারি মাসে শুরু হয়েছিল স্বীকৃতি মজুমদার ও অর্পণ ঘোষালের ‘মেয়েবেলা’। অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ চরিত্র বীথি রূপে দীর্ঘ আট বছর পর টেলিভিশনে ফিরেছিলেন বিজেপি নেত্রী -রূপা গঙ্গোপাধ্যায়। পাঁচ মাসে টিআরপি (TRP) -তে সেরা দশে স্থান পেলেও, খুব একটা ভাল স্কোর করেনি এই মেগা। এরপর হঠাৎ ধারাবাহিক থেকে বিদায় নেন রূপা। তাঁর স্থানে বীথি চরিত্রে অভিনয় শুরু করেন, অনুশ্রী দাস। অনেকে মনে করছিলেন, রূপা গঙ্গোপাধ্যায়ের জায়গায় অনুশ্রী দাস আসায়, ধারাবাহিকের রেটিং আরও পড়ছে।

শেষ প্রকাশ্যে আসা টিআরপি তালিকায় ৫.০ নম্বর পেয়ে সপ্তম স্থানে রয়েছে ‘মেয়েবেলা’। চ্যানেল বা কলাকুশলীদের কেউ মুখ না খুললেও, টেলিপাড়ায় কানাঘুষো শোনা যাচ্ছিল খুব শীঘ্রই শেষ হবে ‘মেয়েবেলা’। এই জল্পনা বাড়তে থাকে ‘মেয়েবেলা’-র স্লটে নতুন মেগা ‘সন্ধ্যাতারা’ আসার খবর আসতেই। জানা গিয়েছিল ১২ জুন থেকে সন্ধ্যা ৭.৩০ টায় দেখা যাবে অন্বেষা হাজরার নতুন সিরিয়াল। চ্যানেলের তরফে জানানো হয়েছিল ১২ জুন থেকে সন্ধ্যা ৫টায় দেখা যাবে ‘মেয়েবেলা’। সকলে ভাবতে শুরু করেন, এখনই শেষ হবে না মউ-ডোডোদের জার্নি। কিন্তু সে ধারণা ভুল। শীঘ্রই শেষ হবে মেগা।

শোনা যাচ্ছে শেষ হওয়ার আগে মেয়েবেলা নিতে চলেছে টাইম লিপ। দীর্ঘ সাতাশ বছরের টাইম লিপ নিয়ে নতুন অধ্যায় শুরু করতে চলেছে এই ধারাবাহিক। গল্পে দেখানো হতে চলেছে ২০৫০ সাল। দেখা যাবে এই সাতাশ বছরের মৃত্যু হয়েছে বাড়ির সব থেকে সিনিয়র সদস্য পূর্ণিমা মিত্রর। বিথীকা মিত্র এবং সুরজিৎ মিত্র এখনো বেঁচে আছে। আর পিউ এই ২৭ বছরের বিয়ে করেছে ৩ বার, নয় বছর অন্তর অন্তর। আর নতুন সদস্য হিসেবে দেখা যাবে মৌ আর ডোডোর ছেলেকে। তবে নতুন লুকে বাড়ির বাকি সমস্ত সদস্যদের দেখা যাবে না। ধারাবাহিনকে দেখা যাবে শুধুমাত্র মৌ ডোডো তাদের ছেলে আর ছেলের বউকে।

এই নতুন লুক দেওয়ার জন্য মৌকে পড়ানো হয়েছে একটি মোটা কালো ফ্রেমের চশমা আর চুলটা সামান্য পাকানো হয়েছে। এই নতুন লুকে মৌকে খুবই সুন্দর লাগছে। আর ডোডোকে দেওয়া হয়েছে একটি মোটা কালো গোঁফ। ডোডোকেও গোঁফ নিয়ে পাঞ্জাবি পরে বেশ ভালো মানিয়েছে। ডোডো আর মৌ এর ছেলের ডাক নাম দেওয়া হয়েছে ডিডো। ডোডো মৌয়ের ছেলে চরিত্রে নেওয়া হয়েছে এক নতুন নায়ককে। সবদিক থেকেই গুছিয়ে উঠেছে মৌ এর সংসার। সবটা গুছিয়ে সুন্দরভাবে শেষ করার পরিকল্পনা করেছেন মেয়েবেলা ধারাবাহিকের নির্মাতারা।

Back to top button