ফের দর্শকদের আনন্দ দিতে একসাথে ফিরছে পিলু আর রঞ্জা, নতুন কাজের কথা নিজেই জানালেন মেঘা

ডান্স বাংলা ডান্স-এর স্টেজ থেকে অভিনেত্রী হয়ে ওঠা। জি বাংলার (Zee Bangla) জনপ্রিয় ধারাবাহিক পিলুর কেন্দ্রিয় চরিত্র মেঘা দাঁ (Megha Daw)-র জীবন এভাবেই রাতারাতি পাল্টে গিয়েছিল। এখন মেঘার থেকেও বেশি তাঁকে দর্শকেরা পিলু নামেই চেনে। সম্প্রতি আসতে চলেছে তার নতুন প্রজেক্ট উর্যা। বর্তমানে তার জীবন নিয়ে অনেক কথাই দর্শকদের জানালেন অভিনেত্রী।

ধারাবাহিক শেষ হওয়ার পর কিভাবে সময় কাটছে তার?

অভিনেত্রী জানান, “এখন সত্যি বলতে অনেকটাই ব্যস্ত রয়েছি। নাচ নিয়ে নতুন প্রজেক্ট নিয়ে কাজ করার পর আর সময় হয়ে ওঠে না। তারপর আমি মাস্টার্স করছি এই কিছুদিন আগে আমার পরীক্ষা শেষ হল। পড়াশুনোর এত চাপ যে অন্য কিছুতে মন দেওয়ার সময়ই হয় না।”

এখনো কি মানুষ পিলু বলেই ডাকে?

তিনি বলেন, “হ্যাঁ এখনো বেশিরভাগ মানুষ আমাকে পিলু বলেই চেনে। যেখানেই যাই মানুষজন পিলু বলে ডাকে আর অনেক ভালোবাসা দেয়। এখনো অব্দি পিলু থেকে বেরিয়ে আসতে পারিনি। দর্শকদের কাছে আমি পিলু নামেই পরিচিত। বেশ ভালো লাগে এটা দেখে।”

ছোট পর্দায় কবে ফিরছে মেঘা?

মেঘা বলেন, “এখন পড়াশোনার খুব চাপ যতদিন না পড়াশোনা শেষ হচ্ছে মানে এমএ শেষ হচ্ছে ততদিন অব্দি ধারাবাহিকে ফেরার কোন পরিকল্পনা নেই। কারণ অনার্সের সময় ম্যানেজ করে নিয়েছিলাম কিন্তু এই মাস্টার্সে সেটা সম্ভব নয়। অফার এসেছিল কিন্তু আমি সেভাবে সময় বার করতে পারিনি।”

এই প্রতিযোগিতার যুগে হারিয়ে যাওয়ার ভয় লাগে না?

তিনি বলেন, “না একদমই না। ছোটবেলায় মা বলতো হিংসা পতনের মূল। আমি কখনো কারো সাথে প্রতিযোগিতা করতাম না। আমার প্রতিযোগিতা বিষয়টা পছন্দ নয়। অন্যরা অন্যদের মতন করে ভালো আর আমি আমার মতন। সবাই ভালো করুক আমি আমার জীবনে ভালো করি। আমি এটাই চাই।”

উর্যার মাধ্যমে আবার পিলু রঞ্জা এক হল কেমন লাগছে?

মেঘা বলেন, “হ্যাঁ এটা একদম ঠিক আবার অনেকদিন পর ইধিকা দির সাথে কাজ করছি। খুব ভালো লাগছে। পিলুর টিমকে বেশ মিস করতাম। ইধিকা দিকে পেয়ে আবার আগের কথাগুলো মনে পড়ে যাচ্ছে। ভালই লাগছে।”

পুজোতে কি করবে মেঘা?

তিনি বললেন, “কোন বারেই আমার পূজোতে তেমন কোন প্ল্যান থাকে না। তবে যেটুকু যা হয় এবারে সেটুকুও নেই। সময়ই করে উঠতে পারিনি এসব করার। এখন অব্দি কোন কিছুই ঠিক করিনি এবার দেখা যাক কি হয়।”

Back to top button