বন্দুক হাতে পেয়ে আগেই রূপকে শেষ করলো ময়ূরী! মেঘকে নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার কথা ভাবলো নীল!

শেষ থেকে শুরু করছে জি বাংলার (Zee Bangla) চ্যানেলের ইচ্ছে পুতুল (Ichhe Putul)। বর্তমানে জনপ্রিয়তার শীর্ষে পৌঁছলেও টিআরপিতে তেমন ভালো ফল দিতে পারেনি এই মেগা। তাই শোনা যাচ্ছে ফেব্রুয়ারির শেষেই নাকি অন্তিম পর্ব সম্প্রচার হবে এই ধারাবাহিকের। তবে ধারাবাহিকের বর্তমন পর্ব গুলো মোড় ঘুরিয়ে দিতে পারে এই ধারাবাহিকের।

বর্তমান গল্প অনুযায়ী, শুরু হয়ে গিয়েছে মেঘ নীলের মহা বিবাহ পর্ব। ইতিমধ্যেই বিয়ের সাজে তৈরি হয়ে গিয়েছে ধারাবাহিকের নায়ক এবং নায়িকা। অন্যদিকে এই বিয়ে দেওয়ার জন্য সুন্দর প্ল্যান করে ফেলেছে ময়ূরী। এখন শুধু সময়ের অপেক্ষা। একটু একটু করে চিন্তার পারদ বেড়েই চলেছে মধুমিতার মনে। সবটা ভালোয় ভালোয় মিটলে শান্তি পাবে তারা।

ধারাবাহিকের আজকের পর্বে দেখা যায়, নীলকে বরণ করছে তার মা। ঠিক সেই সময় নীল একটা প্রশ্ন করে বসে সে বলে, “মেয়ের একবারও ইচ্ছে হলো না আমার বিষয়ে জেনে নেওয়ার? ডাউট হচ্ছে আমার। সেই মেয়েটা আমার সম্পর্কে সব জানে তো? জানার পরেও একবারও কেন দেখা করলো না?” কাজ থেকে সবটাই দাঁড়িয়ে শুনছিল ঠাম্মি। সে বুদ্ধি করে গোটা বিষয়টাকে কথা দিয়ে চাপা দেয় এবং নীলকে নিয়ে বেরিয়ে যাওয়ার জন্য তোড়জোড় শুরু করে।

এদিকে ডায়মন্ড সেট নেওয়ার বাহানায় ময়ূরী চলে আসে রূপের বাড়ি। রূপ তাকে বন্দুকটা দেয়। সেই বন্দুকটা ময়ূরীর রূপের দিকে তাক করে। রূপ বলে বন্ধুকে এখনো কোন গুলি নেই, গুলি তার কাছে রয়েছে। ময়ূরী বলে রূপ যেন তাকে সমস্যাটা শিখিয়ে দেয়। এরপর রূপ ময়ূরীকে বলে, “প্রথমে মেঘেকে একটা ফাঁকা জায়গায় আনবে তারপর গুলি চালাবে কিন্তু আওয়াজ হবে না। কাজ নিতে গেলে আমার এসে ওটা দিয়ে দেবে।”

এরপর রুপ জানতে পারে ময়ূরীর কাছে একটা ডায়মন্ড সেট আছে। যারা মাত্রই সেটা ময়ূরীর থেকে নিয়ে নেয় আর বলে, “আমি তোমাকে এত বড় একটা হেল্প করছি তার বদলে তুমি আমাকে কিছু দেবে না? তুমি আমায় এই ডায়মন্ড সেটটা দাও। পরতে না পারি বিক্রি তো করতেই পারব।” রূপ যে কতটা লোভী সেটা বুঝতে পারে ময়ূরী। অন্যদিকে নীল আসলো বলে। উত্তেজনা বেড়ে যাচ্ছে অনিন্দ্য আর মধুমিতার মনে। সবটা ঠিকঠাক মিটবে তো? এই চিন্তাই ঘুরপাক খায় তাদের মনে।

Back to top button