যশ খ্যাতি সবকিছু পেয়েও একজন অসাধারণ ব্যক্তিত্ব কোয়েল মল্লিক, কখনো কোনো সমালোচনা ছুঁতে পারেনি তাকে

বাংলা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে নতুন করে পরিচয়ের দরকার পড়বে না কোয়েল মল্লিকের। টলিউডকে বহু সিনেমা উপহার দিয়েছেন অভিনেত্রী। তাঁর অভিনীত ছবি মানেই বক্স অফিসে হিট। কোয়েল মল্লিককে কখনই পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। অভিনেত্রীর প্রথম থেকেই ইচ্ছা ছিল যে আগে কেরিয়ার তৈরি করে তারপরই ব্যক্তিগত জীবনে মনোযোগ দেবেন।

টলিউডে কোয়েলকে নিয়ে কম গুজব হয়নি। অনেক সময়ে তাকে নিয়ে অনেক কথা রটানো হয়েছে। কিন্তু এসব কিছুই বেশি দিন প্রভাব ফেলতে পারেনি তার জীবনে। এই সমস্ত কিছুকে খুব একটা পাত্তা দিতে নারাজ ছিলেন অভিনেত্রী। বিয়ের মতো কঠিন সিদ্ধান্তও তিনি নিয়েছেন ভেবেচিন্তে। আর তাই আজ নিসপাল সিং রানের সঙ্গে সুখেই সংসার করছেন কোয়েল।

কেরিয়ারের মধ্য গগনে থাকার সময়ই তিনি জীবনের এক বড় সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছিলেন। রাতারাতি স্থির করেছিলেন তিনি বিয়ের পিঁড়িতে বসবেন। বাড়ি থেকে বারে বারে তাঁকে চাপ দেওয়া হয়েছিল একটা সময়। এক পুরনো সাক্ষাৎকার থেকে জানা যায় যে বাড়ি থেকে তাঁকে বার বার বিয়ের জন্য চাপ দেওয়া হচ্ছিল। কারণ মল্লিক বাড়ির নিয়ম বেশ রক্ষণশীল। ততদিনে অবশ্য নিসপাল সিং রানের সঙ্গে সম্পর্ক শুরু হয়ে গিয়েছে কোয়েলের। বর্তমানে এক সন্তানের মা এই অভিনেত্রী।

২০০৩ সালে জিৎ-এর বিপরীতে ‘নাটের গুরু’ ছবি দিয়ে টলিউডে পথ চলা শুরু করেন কোয়েল। এই ছবির পর থেকে জিৎ-কোয়েল জুটি এক জনপ্রিয় জুটি হিসেবে প্রায় ১১টি ছবিতে অভিনয় করেন। এখন অভিনয় জগতে পা রাখা মাত্রই যেখানে নামের সঙ্গে জড়িয়ে যায় নানান বাদ বিতর্ক। সেদিক থেকে কোয়েল তার দীর্ঘ ২০ বছরের কেরিয়ারে সমস্ত বিতর্ক থেকে দূরত্ব বজায় রেখেছেন।

দর্শকদের একেবারে মনের মতন হয়ে উঠেছেন এই অভিনেত্রী। শুরু থেকে এখনো পর্যন্ত শুধু চরিত্রের অধিকারিনী তিনি। তার জীবনে দাগ লাগাতে পারবেন না কোন সমালোচকই। আজকের দিনের এই ডিভোর্স ডিভোর্স খেলা থেকে নিজেকে সরিয়ে রেখে সুখে শান্তিতে এগিয়ে যাচ্ছেন রঞ্জিত কন্যা। রাজনীতির চক্রব্যূহেও নিজেকে কখনো যুক্ত করেননি তিনি। রাজনীতি না করেও যে মানুষের উপকার করা যায় তাদের ভালোবাসা যায় তারই প্রমাণ দিয়েছেন অভিনেত্রী কোয়েল মল্লিক। জীবনে সমস্ত রকমের কালিমা থেকে মুক্ত রেখে নিজের কাছে এবং দর্শকদের কাছে অনন্যা হয়ে উঠেছেন তিনি।

Back to top button