‘কাকুমনি নির্দোষ, আসল দোষী অন্য কেউ’- রাজনাথকে বাঁচাতে মরিয়া কৌশিকী, কাঁকনকে সরাতে উদ্যত বৈদেহি!

এর আগেও জি বাংলার (Zee Bangla) জগদ্ধাত্রী (Jagaddhatri) ধারাবাহিকের অন্যতম চরিত্র কৌশিকীর মেয়ে কাঁকনকে অনেক কষ্ট ভোগ করতে হয়েছে উৎসব আর মেহেন্দির জন্য। আরো একবার কৌশিকীর অনুপস্থিতিকে কাজে লাগিয়ে কাঁকনকে সরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছে বৈদেহি। বর্তমানে জমে উঠেছে এই ধারাবাহিক। চলতি সপ্তাহেও প্রথম স্থান অধিকার করেছে জগদ্ধাত্রী। ধারাবাহিকের টিআরপি দেখবার মত।

বর্তমানে গল্প অনুযায়ী, না চাইতেও বাস্তবটা ধারাবাহিকের নায়ক নায়িকার কাছে অনেকটাই জটিল হয়ে উঠেছে। আসল অপরাধীদের খুঁজে বের করতে গিয়ে তাদের এমন কিছু সিদ্ধান্ত নিতে হচ্ছে যা তাদের মনের বিরুদ্ধে। কিন্তু সেগুলো ছাড়া তাদের সামনে আর কোন উপায় নেই। প্রমাণ যেদিকে নির্দেশ করছে সেই দিকে রয়েছে রাজনাথ। অর্থাৎ স্বয়ম্ভুর বাবা।

ধারাবাহিকের আজকের পর্বে দেখা যায়, দিব্যা সেন এর বাড়ি গিয়ে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে স্বয়ম্ভু। আবার সেই একই প্রশ্ন ঘুরে ফিরে আসে। যেদিন অপরাধ গুলো ঘটেছিল সেই দিন তার গাড়ি রিসর্টে কি করছিল এবং সেই গাড়িতে উত্তরবঙ্গের দেবু কি করছিল? স্বয়ম্ভু তাকে স্পষ্ট জানাই যদি তার উত্তরের সঙ্গে দেবুর উত্তর না মেলে তাহলে তাকে থানায় তুলে নিয়ে যেতে হবে।

অন্যদিকে কৌশিকী আর সাধুদার মধ্যে একটা ঝামেলা লেগে যায়। সাধু দা উপর উপর সবটা বিচার করে রাজনাথকে অ্যারেস্ট করার সিদ্ধান্ত নেয়, আর অন্যদিকে কৌশিকী জোর গলায় বলে এই সব কিছুর সঙ্গে কাকুমনি কোনোভাবেই যুক্ত নয় তাকে ফাঁসানো হচ্ছে। কারণ যদি কাকুমনি সত্যিই এই সবকিছু করত তাহলে এত প্রমাণ চারিদিকে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রাখত না। সব কিছু মুছে ফেলত এই প্রমাণই বলে দিচ্ছে তাকে কেউ ফাঁসানোর চেষ্টা করছে। আর নিজে আড়ালে থেকে একের পর এক অপরাধ করে চলেছে।

আরও পড়ুন: জ্যাস ঝড়ে কাবু টিআরপি তালিকা! পর্ণা ফুলকির সাথে জোর টক্কর দীপার, আজকের টিআরপি তালিকা দেখলে অবাক হবে দর্শক!

এদিকে কাঁকন যে জগদ্ধাত্রী কে দেখেছে সেটা জানতে পেরে বেশ চিন্তায় পড়ে বৈদেহি। তাই সে বারবার কৌশিকীর মেয়েকে নানা রকম ভাবে জিজ্ঞাসা করতে থাকে যে, সে জগদ্ধাত্রীকে কোথায় দেখেছে কিভাবে দেখেছে ইত্যাদি। এরপর কথায় কথায় কাঁকনকে হোস্টেলে পাঠিয়ে দেওয়ার কথাটা উঠলে তখনই সেখানে চলে আসে সাংভি। সে বলে ওই বাচ্চা মেয়েটা কোথাও যাবে না ওর দেখাশোনার দায়িত্ব সে নিজে নিয়ে নেবে। ওর যা সম্পত্তি আছে তাতে ওকে দেখার দশটা লোক থাকতে পারে। ও কখনোই হোস্টেলে গিয়ে থাকবে না।

Back to top button