সামনেই অন্যায় করো তবু কেউ দেখবে না এটা সিরিয়ালেই সম্ভব! সবার সামনে মেঘের সাথে অসভ্যতামি করেও পার পেয়ে গেল রূপ

জি বাংলার (Zee Bangla) একটি চর্চিত এবং সমালোচিত ধারাবাহিক হচ্ছে ইচ্ছে পুতুল (Ichhe Putul)। যদিও বর্তমানে ধারাবাহিকটি তার অত্যাধুনিক প্লটের মধ্যে দিয়ে দর্শকদের মনে জায়গা করে নিচ্ছে। তবে শুরুতে ধারাবাহিকটিকে অনেকটা স্টার জলসায় সম্প্রচারিত ইচ্ছে নদীর অনুকরণ বলে মনে করেছিলেন দর্শকরা।

ইচ্ছে পুতুলের বর্তমান গল্প

গল্প অনুযায়ী বোনের সুখ কখনোই সহ্য করতে পারেনা দিদি ময়ূরী। মেঘের যেটা পছন্দ সেটাই ময়ূরীর চাই আর সেটা সে নিয়েও নেয় মেঘের থেকে। একটি কঠিন অসুখ থাকার দরুন ছোট থেকেই মেঘের রক্ত দিয়েই বেঁচে রয়েছে ময়ূরী তবু ওপনের প্রতি একটুও সহানুভূতি নেই তার। তার বিবাহিত বোনের জীবনে একটার পর একটা অশান্তির সৃষ্টি করে যাচ্ছে সে।

আজকের পর্বে যা ঘটবে

ধারাবাহিকের বর্তমান প্লট অনুযায়ী নীলের বোন একটি খারাপ ছেলের পাল্লায় পড়ে যাকে খুব ভালো করেই চেনে মেঘ। গিনিকে বাঁচানোর জন্য তাকে সাবধান করে মেঘ। গিনি না শুনতে চাইলে বাড়ির সকল কেউ বিষয়টা জানায় সে। কিন্তু লাভের লাভ কিছুই হয়নি। পরে সবাই মিলে সিদ্ধান্ত নিয়ে রূপঙ্করকে বাড়িতে ডাকে। বাড়িতে এসেই বানানো বা কিছু কথা এবং ভালো ব্যবহার সংস্কারীতা এসবের ভান করে সবার মন জেতার চেষ্টা করে রূপ।

এর পরের ঘটে এক নোংরা বিষয়। সবাইকে প্রণাম করার পর মেঘকেও তোমার প্রণাম করতে আসে রূপঙ্কর। আর এই প্রণাম করার অছিলায় অসভ্য ভঙ্গিতে মেঘের পায়ে হাত দেয় সে। সেই মুহূর্তে সেখানে প্রবেশ করে নিল। কিন্তু নীলসহ বাড়ির প্রত্যেকের ওখানে উপস্থিত থাকলে কারোর চোখে পড়ে না এই বিষয়টি। একমাত্র বুঝতে পারে ময়ূরী। কিন্তু এটা কি আদৌ সম্ভব?

এ কেমন পরিবার যারা এত বড় একটা নোংরা বিষয়কে চোখের সামনে হতে দেখেও কিছু বুঝতে পারেনা? দর্শকমহলে এই নিয়েই বেশ সমালোচিত হচ্ছে ইচ্ছে পুতুল। আগেও অনেক কারণে ট্রোল হয়েছে এই ধারাবাহিকটি। দর্শকদের মতে বাস্তবে যদি এমন ঘটনা ঘটতো তাহলে হয়তো সেখানেই মার খেয়ে যেত রূপ। কিন্তু নীলের পরিবার এতটাই রূপকে নিয়ে বিভোর যে তার কোন খারাপ কিছুই চোখে পড়ছে না তাদের। বিষয়টি একদমই ভালোভাবে নিচ্ছেন না দর্শকরা।

Back to top button