বাবা মাকে আলাদা করল ছেলেরা! একের পর এক বাস্তব তুলে ধরছে “হরগৌরী পাইস হোটেল”!

বর্তমানে বেশ জনপ্রিয় একটি সিরিয়াল হল স্টার জলসার (Star Jalsha) ‘হরগৌরী পাইস হোটেল’ (Horogouri Pice Hotel)। শুরু হওয়ার পর থেকেই বেশ নজর কাড়ছে এই মেগা। ধারাবাহিকে নায়ক শঙ্করের চরিত্রে অভিনয় করছেন জনপ্রিয় টেলি অভিনেতা রাহুল মজুমদার (Rahul Majumdar)। আর তার বিপরীতে নায়িকা ঐশনীর ভূমিকায় রয়েছেন নবাগতা অভিনেত্রী শুভস্মিতা মুখার্জি (Suvashmita Mukherjee)। বর্তমানে দর্শকদের মন জয় করে নিচ্ছে এই জুটি।

একেবারে অন্য পরিবেশে বড় হয়ে ওঠা একটি মেয়ের শ্বশুর বাড়িতে এসে আর এক পরিবেশে নিজেকে মানিয়ে নেওয়ার গল্প নিয়েই শুরু হয়েছিল এই ধারাবাহিক। এরপর এক এক করে নানান প্লট এসেছে এই ধারাবাহিকে। নিজেদের হোটেলকে বাঁচাতে অনেক লড়াই করেছে নায়ক এবং নায়িকা। তবে ধারাবাহিকের বর্তমান পথ দর্শকদের বাস্তবের স্বাদ দিচ্ছে।

বর্তমান ধারাবাহিক প্রেমী মানুষেরা তাদের প্রিয় ধারাবাহিক গুলিতে বাস্তব ঘটনার প্রতিফলন দেখতে চাইছে। যে ধারাবাহিক গুলি বাস্তবকে তুলে ধরছে সেগুলি নিমেষে জনপ্রিয়তা পাচ্ছে। তার সবচেয়ে বড় উদাহরণ হল জি বাংলায় নবাগত ধারাবাহিক কার কাছে কই মনের কথা।

এইবার হরগৌরী পাইস হোটেলেও তুলে ধরা হলো এক কঠোর বাস্তব। বর্তমান গল্প অনুযায়ী হাড়ি আলাদা হয়ে যাচ্ছে ঐশানীর সংসারে। তার পাশাপাশি ভাগ হয়ে যাচ্ছে মা-বাবাও। সারা জীবন একসাথে হাতে হাত ধরে যারা চলেছে, তাদেরকে এবার থেকে আলাদা থাকতে হবে। সম্পত্তি গাড়ি বাড়ি টাকা পয়সার মতন মা বাবাও এভাবেই ভাগ হয়ে যায় দুই ছেলের মাঝে।

আজকের দিনে প্রায় প্রতিটা ঘরে ঘরেই এমন ঘটনা ঘটে চলেছে। মা-বাবা বৃদ্ধ হয়ে গেলে অনেক ছেলে মেয়েই তাদের বোঝা হিসেবে মনে করে তাদেরকে ভাগ করে নেয়। তারা একবারও ভাবেনা শেষ বয়সে এই বিচ্ছেদ তাদের কতটা যন্ত্রণা দেবে। এই চরম বাস্তবটাই তুলে ধরছে হরগৌরী পাইস হোটেল।

Back to top button