ভয়ংকর প্রোমো খেলনা বাড়ির, বিয়ে হয়ে মৃত্যুপুরীতে গুগলি! কী করে বাঁচাবে মিতুল?

বিয়ে করে শ্বশুরবাড়ি নাকি যমের বাড়ি গেল গুগলি! মিতুল কি পারবে নিজের মেয়েকে সর্বনাশ থেকে বাঁচাতে?

এই মুহূর্তে দাঁড়িয়ে জি বাংলার (Zee Bangla) একটি অপেক্ষাকৃত পুরনো এবং জনপ্রিয় ধারাবাহিক হচ্ছে খেলনা বাড়ি (Khelna bari)। বর্তমানে টিআরপিতে তেমন ভালো ফল করতে না পারলেও একসময় বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিল এই ধারাবাহিক। হঠাৎ করেই ধারাবাহিকে বেশ অনেকগুলো বছরের লিপ নেওয়া হয়। তারপর থেকেই টিআরপি একেবারে তলানিতে ঠেকেছে।

কিছুদিন ধরেই শোনা যাচ্ছে আর বেশি দেরি নেই এবার খুব তাড়াতাড়ি শেষ হয়ে যেতে চলেছে জি বাংলার এই জনপ্রিয় ধারাবাহিক। তাই অন্যান্য ধারাবাহিকের তুলনায় এই ধারাবাহিকের গল্প এগোচ্ছে অনেক দ্রুত গতিতে। যত শেষের দিকে এগোচ্ছে তত এই ধারাবাহিকের গল্প জমজমাট হয়ে উঠছে। সম্প্রতি সামনে এসেছে ধারাবাহিকের নতুন প্রোমো।

বর্তমানে এই ধারাবাহিকে একটি নতুন প্রোমো ভিডিও সম্প্রচারিত হয়েছে, যেখানে দেখা যাচ্ছে বিয়ে হচ্ছে গুগলির। বধূ বেশে সুন্দর বানিয়েছে তাকে। বিয়ে শেষে মিতুলের আঁচলে চাল দিয়ে তার ঋণ শোধ করে চলে যাচ্ছে গুগলি। যাওয়ার আগে মিতুল তার জল ভরা চোখ নিয়ে গুগলিকে বলে, “ভালো থেকো মা।”

এরপরে দেখা যায় নতুন বাড়িতে প্রবেশ করছে গুগলি, এটা তার শ্বশুরবাড়ি। বিয়ের পরে যেমন সমস্ত আচার অনুষ্ঠান হয়ে থাকে ঠিক তেমন করেই তার পায়ের সামনে রাখা হয়েছে দুধে আলতার থালা। সেখানে পা দিয়ে ধীরে ধীরে প্রবেশ করছে গুগলি। তাকে বরণ করে নিচ্ছেন তার শাশুড়ি।

অন্যদিকে গুগলির শ্বশুরবাড়ির লোকজন এক লালসা ভরা নজরে তার দিকে তাকিয়ে রয়েছে। গুগলের শাশুড়ি মনে মনে বলছেন আবার অনেকদিন পর তারা এরকম গা ভর্তি গয়না সমেত একটা শিকার পেয়েছেন। তাদের দেখেই বোঝা যাচ্ছে তারা সুবিধার লোক নন। গুগলির কপালে রয়েছে অশেষ দুর্গতি।

অন্যদিকে প্রদীপ জ্বেলে ঠাকুরের কাছে গুগলির মঙ্গল কামনা করছে মিতুল। সে ঠাকুরকে বলছে গুগলিকে যেন সুখী করেন তিনি। কিন্তু হঠাৎ করেই প্রদীপ নিভে গেল তার। মিতুলও বুঝতে পারল কোন না কোন একটা অমঙ্গল হতে চলেছে। মিতুল কি পারবে গুগলির নতুন জীবনে আসা সব অমঙ্গল গুলোকে সরিয়ে ফেলতে?

Back to top button