শেষ মুহূর্তে খেলা ঘুরিয়ে দিল জ্যাস, ধরা পড়লো আসল অপরাধীরা, জমজমাট জগদ্ধাত্রী

এই মুহুর্তে জি বাংলার (Zee Bangla) পর্দায় সম্প্রচারিত সবচেয়ে জনপ্রিয় ধারাবাহিকটি হচ্ছে জগদ্ধাত্রী (Jagaddhatri)। বর্তমানে বেঙ্গল টপার অনুরাগের ছোঁয়া ধারাবাহিকের সাথে জগদ্ধাত্রীর টিআরপির পার্থক্য মাত্র ০.১। শুরু থেকেই নিজের আকর্ষণীয় গল্প দিয়ে দর্শকদের ড্রয়িং রুম মাতিয়ে রেখেছে এই ধারাবাহিক।

বহুদিন ধরেই জগদ্ধাত্রী ব্যস্ত ছিল এক মৃত্যু রহস্যের সমাধান করতে। বহুবার ভুল দিকেও চালিত হয়েছে সে। কিন্তু অবশেষ দোষীদের ধরতে সক্ষম হল জগদ্ধাত্রী। তবে আসল দোষীর নাম জানলে চমকে যাবেন দর্শকরা। সে আড়ালে বসে বসে কেবল কল কাঠি নারিয়ে গিয়েছে। এইবার তার সব জারিজুড়ি শেষ করল জগদ্ধাত্রী।

এ দিনের পর্বে দেখা যায় জগদ্ধাত্রী জেরা করতে থাকে দিব্যা সেন, দর্পনা এবং নুরিকে। এরপর তুলে আনা হয় ডোডোকে। এই ডোডো হলো নুরি নায়েকের স্বামী। তাকে থানায় তুলে এনে সবার সামনে তার পোল খুলে দিল জগদ্ধাত্রী। এতদিন ধরে সব কিছুর মূলে ছিল সে। তবে নিজের বুদ্ধি দিয়ে তাকে ঠিক চিহ্নিত করতে সক্ষম হয়েছে জগদ্ধাত্রী।

জগদ্ধাত্রী সবার সামনে বলে, “ডোডো একজন হ্যাকার। মেয়েদের বিভিন্ন ছবি হ্যাক করে তাদের থেকে টাকা নেওয়া ব্যাংক অ্যাকাউন্ট হ্যাক করা এবং মানুষের গলা অব্দি নকল করে তাদের বিপদে ফেলা এইসব কিছুর পিছনে রয়েছে এই লোকটা।” সবার সামনে আসল অপরাধীকে এক্সপোস করে ফেলে জগদ্ধাত্রী।

সবকিছু সামনে আসার পর জগদ্ধাত্রী নিজেকে প্রমাণ করতে প্রেস কনফারেন্সে যায় আর ঠিক তখনই তাকে ফোন করে কৌশিকী মুখার্জি। কৌশিকী জগদ্ধাত্রীকে হোল্ডে রেখে ফোন করে দিব্যা সেনকে আর তাকে স্পষ্ট ভাবে জানিয়ে দেয়, যদি জগদ্ধাত্রীর নামে আজ কোন উল্টোপাল্টা নিউজ বেরোয় তাহলে মৃদুল সেনকে সামনে এনে তার জীবনকেও হট টপিক বানিয়ে দেবে কৌশিকী। অবশেষে জয় হল জগদ্ধাত্রীর।

Back to top button