“এটা বক্সিং এর ট্রেনিং হচ্ছে না অন্য কিছু!” রোহিতের দেওয়া ফুলকিকে বক্সিং ট্রেনিং দেখে হাসির রোল নেট দুনিয়ায়

এখন জি বাংলার নাম্বার ওয়ান ধারাবাহিক যদি জগদ্ধাত্রী হয় তাহলে তার পরের জায়গাটাই দখল করেছে জি বাংলার (Zee Bangla) আরো এক অত্যন্ত জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘ফুলকি’ (Phulki)। ধারাবাহিকের নায়িকা দর্শকদের এতটাই প্রিয় হয়ে উঠেছে যে তাকে দেখতেই রোজ টেলিভিশনের সামনে ভিড় জবান ভক্তরা। তবে এইবার এক অদ্ভুত দৃশ্য দেখানোর জন্য সমালোচনা শিকার হল নায়ক নায়িকা।

বর্তমানে এই ধারাবাহিকের গল্প অনুযায়ী, কিছুদিন ধরেই ফুলকি চাইছিল রোহিতকে ডিভোর্স দিতে। কারণ সে তার স্যারের এমন অদ্ভুত পরিস্থিতি সহ্য করতে পারছিল না। অন্যদিকে রোহিত কিছুতেই সেই ডিভোর্সটা দিতে চাইছিল না কারণ সে জানতো একবার যদি ফুলকি ডিভোর্স দিয়ে নিজের বাড়ি ফিরে যায় তাহলে ওর এত সুন্দর একটা ভবিষ্যৎ নষ্ট হয়ে যাবে। ওর মধ্যে একজন দক্ষ বক্সার হওয়ার যে সম্ভাবনাগুলো রয়েছে সেই সব কিছুই হারিয়ে যাবে।

এসব মিথ্যে না মিথ্যেই ফুলকির সামনে চলে আসে অনেক বড় চ্যালেঞ্জ। তাকে এবার এক প্রতিযোগিতার সম্মুখীন হতে হবে। এখানে তার বিপরীতে থাকবে একজন নামি বক্সার আর তাকেই হারাতে হবে ফুলকিকে। এর জন্য চলছে জোর কদমে তোরজোর। হচ্ছে প্র্যাকটিস ম্যাচ। চলছে এক্সারসাইজ। যত রকম ভাবে সম্ভব তত রকম ভাবে ফুলকিকে তৈরি করার চেষ্টা করছে রহিত।

ফুলকির মনের জোর তৈরি করছে তার পরিবারের সদস্যরা। শালিনী নিয়ে যদিও বারবার চেষ্টা করছে ফুলকিকে ভিতর থেকে ভেঙে দেওয়ার কিন্তু ফুলকি এতো অল্পে ভেঙে পড়ার মেয়ে নয়। এই নিয়ে বেশ জমে উঠেছে ধারাবাহিকের প্লট। তবে প্র্যাকটিস চলাকালীন নায়ক নায়িকার কিছু অদ্ভুত কাজকর্ম দর্শকদেরকে সমালোচনায় সাহায্য করেছে।

তারা বুঝে উঠতে পারছেন না এটা বক্সিংয়ের প্র্যাকটিস চলছে নাকি রেসলিং এর? এমনভাবে বক্সিং এর প্র্যাকটিস হয় সেটা ধারণা ছিল না ভক্তদের। এই দৃশ্য প্রকাশ হওয়ার পর থেকেই সমালোচনার ঝড় উঠেছে নেট পাড়ায়। সম্প্রতি তাদের প্র্যাকটিসের কিছু দৃশ্য ধারাবাহিকের পর্দায় ফুটে উঠেছে। যা দেখে হেসেই খুন ভক্তরা। একাধিক মন্তব্যে ভরে উঠছে ধারাবাহিকের পোস্ট। বক্সিং এর প্র্যাকটিস দেখাতে গিয়ে এসব কি দেখাচ্ছে ধারাবাহিক কর্তৃপক্ষ? সমালোচনার চাপে বিপাকে ফুলকি।

Back to top button